অধ্যাপক নাদির জুনাইদের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ: সত্যতা পেয়েছে কমিটি

বার্তা বাহকঃ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক নাদির জুনাইদের বিরুদ্ধে বিভাগের এক ছাত্রীর করা যৌন নিপীড়নের অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পেয়েছে তথ্যানুসন্ধান কমিটি। অভিযোগটি অধিকতর তদন্তের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের যৌন নিপীড়নবিরোধী সেলে পাঠানো হয়েছে। আগামী দুই মাস এই তদন্ত চলবে। এ সময় অধ্যাপক নাদির জুনাইদকে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ও প্রশাসনিক সব কার্যক্রম থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে৷

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম সিন্ডিকেটের সভায় এই সিদ্ধান্ত হয়। সিন্ডিকেট সভায় ফারসি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের এক অধ্যাপকের পিএইচডি অভিসন্দর্ভে জালিয়াতির অভিযোগ তদন্তে আরেকটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই কমিটিকে এক মাসের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

সিন্ডিকেটের দুজন সদস্য প্রথম আলোকে বলেন, গত ১০ ফেব্রুয়ারি অধ্যাপক নাদির জুনাইদের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ করেন বিভাগেরই এক ছাত্রী। এই প্রেক্ষাপটে ক্লাস বর্জনসহ শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে ওই মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে তাঁকে তিন মাসের ছুটিতে পাঠায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ৷ গত মাসের শেষ সপ্তাহে এই অধ্যাপকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ করেন আরেকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক এক ছাত্রী। এমন পরিস্থিতিতে সিন্ডিকেটের সভায় অভিযোগ তদন্তে তিন সদস্যের তথ্যানুসন্ধান কমিটি করা হয়। সেই কমিটির প্রতিবেদন মঙ্গলবারের সিন্ডিকেট সভায় উত্থাপন করা হয়।

সিন্ডিকেট সদস্যরা জানান, অধ্যাপক নাদিরের বিরুদ্ধে ছাত্রীর অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া গেছে বলে তথ্যানুসন্ধান কমিটির প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। বিষয়টির অধিকতর তদন্তের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের যৌন নিপীড়নবিরোধী সেলে পাঠানো হয়েছে। এই তদন্ত শেষ করতে সেলকে দুই মাস সময় দেওয়া হয়েছে। তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত অধ্যাপক নাদির জুনাইদকে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ও প্রশাসনিক সব কার্যক্রম থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে৷

সূত্র: প্রথম আলো

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

বিষয়: * অধ্যাপক * নাদির জুনাইদ * যৌন নিপীড়ন
লাইভ রেডিও
সর্বশেষ সংবাদ