প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা জালিয়াতি চক্রের তিন সদস্য গ্রেফতার 

জয়পুরহাট প্রতিনিধি:
জয়পুরহাটসহ দেশের তিনটি বিভাগে আগামী  (২ফেব্রুয়ারি) প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় জালিয়াতি চক্রের তিন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে জেলা গোয়েন্দা ডিবি পুলিশ।
বুধবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জেলার পাঁচবিবি এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।
গ্রেফতারকৃতরা হলেন, পাঁচবিবি উপজেলার পশ্চিম বালিঘাটা এলাকার আনিছ উদ্দিনের ছেলে রুস্তম আলী(৫৩)। তিনি উচাই কলেজের প্রিন্সিপাল অন্য দুজন জালিয়াতী চক্রের মূল মাস্টারমাইন্ড  বগুড়া  সদর উপজেলার গোকুল এলাকার আব্দুল ওয়াহেদের ছেলে  ইশান ইমতিয়াজ হৃদয় (৩০) ও কুষ্টিয়া জেলার দৌলতপুর উপজেলার  হরিনগাছী এলাকার আরজ আলীর ছেলে  রোকনুজ্জামান রোকন (২৯)।
বুধবার বিকেল সাড়ে ৩টায় জয়পুরহাট জেলা পুলিশ সুপারের আয়োজিত এক প্রেস ব্রিফিং এ বিষয়টি নিশ্চিত করেন পুলিশ সুপার মো: নূরে আলম৷
তিনি সাংবাদিকদের জানান, দেশের তিনটি বিভাগে আগামী ২ফেব্রুয়ারি  সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এরই মধ্যে গোপন সংবাদে জানা যায়, জয়পুরহাট জেলায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে একটি জালিয়াতী চক্র জয়পুরহাট জেলার পাঁচবিবি থানা এলাকায় জালিয়াতী করার উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে। তারা ২০থেকে ২৫ লক্ষ টাকার বিনিময়ে ইলেকট্রনিক ডিভাইসের মাধ্যমে সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় পরীক্ষার্থীদের পাশ করিয়ে চাকুরীর নিয়োগ দেওয়া হবে মর্মে প্রতারণা করছে৷  এই সংবাদের ভিত্তিতে ডিবি পুলিশের একটি অভিযান পরিচালনাকারী দল জয়পুরহাট জেলার পাঁচবিবি থানা এলাকায় রাতভর অভিযান পরিচালনা করে  বুধবার  (৩১জানুয়ারি)  উক্ত চক্রের সাথে জড়িত তিন প্রতারককে গ্রেফতার করে।
আসামীদের হেফাজতে রাখা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রবেশপত্র, চেকরছি, এটিএম কার্ড, বিভিন্ন প্রকারের ডিভাইস, ০৬টি মোবাইল ফোন, মোবাইল সিম, এন্টিনা, এয়ার পট, ইলেক্ট্রনিক সরঞ্জামসহ বিপুল পরিমান মালামাল জব্দ করা হয়েছে। এই প্রতারক চক্রটি রাজশাহী বিভাগসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় প্রতারণা করার উদ্দেশ্যে এদের নেটওয়ার্ক বিস্তার করেছে, তাদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে।
গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হচ্ছে।
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

বিষয়: * জয়পুরহাট
লাইভ রেডিও
সর্বশেষ সংবাদ