সৌদি আরবস্থ রিয়াদে মহান বিজয় দিবস উদ্‌যাপিত

স্টাফ রির্পোটার:

সৌদি আরবে উদ্‌যাপিত হলো মহান বিজয় দিবস। শনিবার (১৬ ডিসেম্বর) রাজধানী রিয়াদস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের আয়োজনে দিবসটি উদ্‌যাপিত হয়।

মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে সকালে দূতাবাস প্রাঙ্গণে পতাকা উত্তোলন করেন রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী। এ সময় দূতাবাসের কর্মকর্তারা ও রিয়াদস্থ প্রবাসী বাংলাদেশিরা উপস্থিত ছিলেন।

এরপর রাষ্ট্রদূত দূতাবাসে স্থাপিত অস্থায়ী স্মৃতিসৌধে ফুল দিয়ে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। শ্রদ্ধা জানান বাংলাদেশ কমিউনিটির বিভিন্ন সংগঠনও।

বিজয় দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন দূতাবাসের প্রধান কাউন্সেলর মোঃ বেলাল হোসেন। আলোচনা সভার শুরুতে দিবসটি উপলক্ষ্যে প্রদত্ত রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করা হয়। আলোচনা শেষে জাতির পিতা ও তাঁর পরিবারের সদস্যবর্গ, মুক্তিযোদ্ধা, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, দেশের সুখ ও সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী। তিনি বলেন, সৌদি আরবে বসবাসরত নতুন প্রজন্মকে দেশের প্রতি ভালোবাসা, মহান মুক্তিযুদ্ধ, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন ও কর্ম সম্পর্কে জানা ও জানাতে হবে।

রাষ্ট্রদূত মুক্তিযোদ্ধাদের দেশের শ্রেষ্ঠ সন্তান উল্লেখ করে বলেন, নতুন প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ও বাঙালিদের বীরত্বগাঁথা সম্পর্কে জানাতে হবে। এছাড়া নতুন প্রজন্মকে দেশের প্রতি ভালোবাসা অনুধাবনের জন্য শেকড়ের কাছাকাছি নিয়ে যাওয়ার কথা বলেন রাষ্ট্রদূত।

আলোচনা সভায় রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী মহান মুক্তিযুদ্ধে জাতির পিতার নেতৃত্ব ও নিহত ত্রিশ লক্ষ শহীদ ও নির্যাতিত দুই লক্ষাধিক মা-বোনের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানান। তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবিসংবাদিত নেতৃত্বে আমরা বাংলাদেশ নামক একটি স্বাধীন রাষ্ট্র পেয়েছি।

রাষ্ট্রদূত আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু তার সারাজীবন উৎসর্গ করেছিলেন একটি সুখী সমৃদ্ধ স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার জন্য। জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা বাস্তবায়নে ও ২০৪১ সালের মধ্যে একটি উন্নত সমৃদ্ধশালী ‘স্মার্ট বাংলাদেশে’ পরিণত করার লক্ষ্যে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর গতিশীল নেতৃত্বে বাংলাদেশের উন্নয়ন আজ বিশ্বের কাছে এক রোল মডেল বলে বিবেচিত।

আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন,রিয়াদ আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি ও সৌদি আরবস্থ ফেনী প্রবাসী ফোরাম এর সভাপতি,কামাল উদ্দীন পাটোয়ারী
বক্তব্যে কামাল উদ্দিন পাটোয়ারী বলেন,দীর্ঘ ৯ মাস হানাদার পাকিস্তান সেনাবাহিনীর মতো এক শক্তিমান সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে অসম যুদ্ধ করেছিলেন দেশের সব ধর্ম, বর্ণ, ভাষার বীর সন্তানেরা।৩০ লাখ মানুষের প্রাণ, ২ লাখ মা-বোনের সম্ভ্রম আর বিপুল সম্পদহানির ভেতর দিয়ে মুক্তির সংগ্রামে সফল হয়েছিলেন মুক্তিযোদ্ধারা। ছিনিয়ে এনেছিলেন চূড়ান্ত বিজয়।জাতিকে মুক্ত করেছিলেন পরাধীনতার শৃঙ্খল থেকে।জাতি আজ এই বিজয়ের আনন্দের দিনে গভীর কৃতজ্ঞতা ও পরম শ্রদ্ধায় স্মরণ করি  স্বাধীনতার জন্য জীবন উৎসর্গকারী সকল বীর সন্তানদের।ও ধন্যবাদ জানাই সৌদিআরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী’কে উক্ত অনুষ্ঠানে আমাকে কিছু বলার সুযোগ করিয়ে দেওয়ার জন্য ।

আরো উপস্থিত ছিলেন,প্রকৌশলী তানভীর সিকান্দার, ব্যবসায়ী এম আর মাহাবুব ও মুক্তিযোদ্ধা প্রকৌশলী মোয়াজ্জেম হোসেন। বক্তারা মহান মুক্তিযুদ্ধ, বিজয় অর্জন ও দেশের সার্বিক উন্নতির ওপর আলোকপাত করেন।

বক্তব্যে দেশের অর্থনীতি শক্তিশালী করার জন্য প্রবাসীদের আহবান জানান রাষ্ট্রদূত। তিনি বলেন, বর্তমানে সৌদি আরবের সাথে বাংলাদেশের মধ্যে পারস্পরিক বিনিয়োগের মাধ্যমে ঘনিষ্ঠ অর্থনৈতিক সম্পর্ক গড়ে উঠেছে।

আগামী দিনে সৌদি আরব বাংলাদেশের সাথে দ্বিপাক্ষিক ব্যবসা বানিজ্য ও বিনিয়োগ আরও বৃদ্ধি পাবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। রাষ্ট্রদূত বলেন, দুদেশের ব্যবসায়ীদের মধ্যে সম্পর্ক তৈরির লক্ষ্যে সৌদি আরবের সাথে বাংলাদেশের বিজনেস ফোরাম গঠিত হয়েছে, যার আওতায় ইতোমধ্যে দুদেশের ব্যবসায়ীদের মধ্যে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

বিষয়: * সৌদি আরবস্থ রিয়াদে মহান বিজয় দিবস উদ্‌যাপিত
লাইভ রেডিও
সর্বশেষ সংবাদ