রাবি ভর্তি পরীক্ষায় প্রক্সি দিতে গিয়ে উপজেলা কর্মকর্তা আটক

সদরুল আইনঃ
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ‘এ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা দিতে গিয়ে শেখ আবু হানিফ নামের এক উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা (বিসিএস) আটক হয়েছেন।
প্রথমে নিজের পরিচয় গোপন করলেও গতকাল মঙ্গলবার রাতে ৭ ঘণ্টা জিজ্ঞেসাবাদ শেষে এ তথ্য বের হয়ে আসে।
বুধবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই জানিয়েছেন মেট্রোপলিটন পুলিশের উপকমিশনার বিজয় বসাক।
তিনি বলেন, গতকাল ‘এ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা চলাকালে জালিয়াতির অভিযোগে ৭ জনকে আটক করা হয়।
অন্যরা নিজের পরিচয় ও জালিয়াতির কথা স্বীকার করলেও সঠিক তথ্য দেননি এই অভিযুক্ত। প্রথমে রুপম সরকার পরিচয় দেন এবং অন্যান্য পরিচয়ও গোপন করেন।
 তারপর প্রায় ৭ ঘণ্টা জিজ্ঞেসাবাদ শেষে তার আসল পরিচয় জানা যায়। তার বিরুদ্ধে মামলা প্রক্রিয়াধীন।
জানা গেছে, অভিযুক্ত এই প্রক্সিদাতা ঝালকাঠি জেলার নলছিটি উপজেলার শেখ আবুল খায়েরের ছেলে। তিনি ৩৮তম বিসিএস-এ নন-ক্যাডার ছিলেন। বর্তমানে বরিশালের গৌরনদী উপজেলার সহকারী সমাজসেবা কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।
সংবাদ সম্মেলনে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক আসাবুল হক, জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক অধ্যাপক প্রদীপ কুমার পাণ্ডে, ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক জাহাঙ্গীর আলম সাউদ, রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের উপকমিশনার একরামুল প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

বিষয়: * উপজেলা কর্মকর্তা আটক * রাবি ভর্তি পরীক্ষায় প্রক্সি