১৫ হাজার টাকায় বিক্রি হওয়া শিশু নবীগঞ্জ থেকে উদ্ধার

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি :
প্রথমে নিজেকে অসহায়-অনাথ পরিচয় দিয়ে বাড়িতে আশ্রয় প্রার্থনা করে জাফর। ২০ দিনের মাথায় পরিবারের শ্বস্ততা অর্জন করে ১৪ মাস বয়সী  শাহ জাহানকে অপরহরণ করে ১৫ হাজার টাকায় বিক্রি করে জাফর। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনা সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার।
আইনশৃঙ্খলা বাহীনির সাঁড়াশি অভিযানে অপরহরণ হওয়া শিশুকে হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ থেকে উদ্ধার করা হয়। এসময় গ্রেফতার করা হয় এক মহিলাকে।
মঙ্গলবার সকালে সিলেট জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ( ক্রাইম এন্ড অপস) শেখ মো. সেলিম প্রেস বিফ্রিং করে এ তথ্য জানিয়েছেন।
পুলিম সুপার কার্যালয়ে প্রেস বিফ্রিংয়ে শেখ মো. সেলিম জানান, ২৭ মে সকালে উপজেলার রুস্তুমপুর ইউনিয়নের উপরগ্রামের মো. ফয়জুদ্দিনের ছেলে শাহ জাহান নিজ বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয়। পরে ফয়জুদ্দিন গোয়াইনঘাট থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করে। পুলিশ উদ্ধারে তৎপর হয়। গোয়াইনঘাট থানা পুলিশের একটি দল হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে অভিযান পরিচালনা করে ঐ শিশুকে উদ্ধার করে। নবীগঞ্জ উপজেলার সর্দারপুর গ্রামের মমতা বেগম (৪৫) নামের এক মহিলার বাড়ি থেকে শিশু উদ্ধার করা হয়। এসময় ঐ মহিলাকে অপহরণের অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় ।
‘অপহরণের মূল পরিকল্পনাকারী জাফর প্রকৃত পরিচয় গোপন করে ভিকটিম শাহ জাহানকে অপহরণ করার পরিকল্পনা করে। পরিকল্পনা করে জাফর নিজেকে অসহায় ও অনাথ পরিচয় দিয়ে অবস্থান নেয়। প্রায় ২০ দিন বাড়িতে অবস্থান করে বিশ্বস্ততা অর্জন করে গত ২৭ মে সুযোগ বুঝে ঐ শিশুকে অপহরণ করে হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে নিয়ে গ্রেফতারকৃত মমতা বেগমের কাছে ১৫ হাজার টাকায় বিক্রি করে পালিয়ে যায়।’ জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শেখ মো. সেলিম।
এদিকে পলাতক আসামি জাফরকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে বলে জানিয়েছে সিলেট জেলা পুলিশ।
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

বিষয়: * নবীগঞ্জ থেকে উদ্ধার
লাইভ রেডিও
সর্বশেষ সংবাদ