কাঁটাতার ডিঙিয়ে আসা সব হিন্দু-মুসলমানকে চলে যেতে হবে: শুভেন্দু

সদরুল আইনঃ
‘হিন্দু হোক বা মুসলিম! কাঁটাতারের বেড়া ডিঙিয়ে যারা ঢুকেছো, তাদের কাঁটাতারের বেড়ার ওপারে যেতে হবে’ বলে মন্তব্য করেছেন পশ্চিমবঙ্গের বিরোধী দলনেতা ও বিজেপি বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী। মালদহের মানিকচকের একটি জনসভা থেকে এই মন্তব্য করেন শুভেন্দু অধিকারী।
রাজ্যের ক্ষমতাসীন দল তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে বিভিন্ন দুর্নীতির অভিযোগ তুলে যেমন নিশানা করেন, তেমনি এত দুর্নীতির অভিযোগ থাকা সত্ত্বেও যারা এই দলটিকে ভোট দিয়ে ক্ষমতায় এনেছে তাদের বিরুদ্ধেও তোপ দাগেন শুভেন্দু।
সভায় উপস্থিত দর্শকদের উদ্দেশ্যে দেশটির কেন্দ্রীয় সরকারের অর্থায়নে বিভিন্ন জনকল্যাণমুখী প্রকল্পের বিষয়টি উত্থাপন করে শুভেন্দু বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সমস্ত উন্নয়ন করেছেন।
আমি সংখ্যালঘুদের বলব আট জন সংসারে আছেন, গম আর চাল মিলিয়ে আপনারা ৪০ কিলোগ্রাম করে রেসনের মালামাল নিয়ে আসছেন। এটা আপনার দিদি বা বুয়ার রুপি নয়। এটা ভারত সরকারের অর্থ।
২০২১ সালের মে মাস থেকে ৮১ কোটি মানুষকে ‘অন্ন সুরক্ষা যোজনা’তে বছরে দুই লক্ষ কোটি রুপি খরচ করে প্রধানমন্ত্রী তাদের জন্য আহারের ব্যবস্থা করে দিচ্ছেন।
তখন তো আপনাদের ভেদাভেদের কথা মনে পড়ে না। কেন এই চোর পার্টিকে (তৃণমূল) ভোট দেবেন? কেন আমাদের (বিজেপি) সাথে আসবেন না?। আমরা রাষ্ট্রবাদীদের সাথে আছি।’
এ সময় শুভেন্দুর হুঁশিয়ারি ‘… যে কাঁটাতারের বেড়া ডিঙিয়ে ঢুকেছো, তাকে কাঁটাতারের বেড়ার ওপারে যেতে হবে।
সে হিন্দু হোক বা মুসলমান। কাঁটা তারের বেড়া ডিঙিয়ে এলে তার সাথে কোন ব্যাপার নেই। যে ভারতে জন্মেছ, যে রাষ্ট্রবাদকে বিশ্বাস করো,  জনগণমন-অধিনায়ক, বন্দেমাতারম বলো তার সাথে বিজেপির বিরোধ ছিল না, আজকেও নেই, কালকেও থাকবে না। ‘
তৃণমূলের বিরুদ্ধে শুভেন্দুর অভিযোগ, ‘এনআরসির ভয় দেখিয়ে তারা ভোট নিয়েছে, আর সংখ্যালঘুরাও দলবেঁধে ভোট দিয়েছে। ‘
তার অভিমত ‘ভারতে যারা জন্মেছেন, ভারতে যারা ঘুমোতে চান, তাদের সঙ্গে বিজেপির কোন বিরোধ নেই। নরেন্দ্র মোদির একটা স্কিম শুধুমাত্র হিন্দু, আদিবাসী, জনজাতি বা তফসিলিদের জন্য নয়… সকলের জন্য। ‘
বছর ঘুরলেই ২০২৪ সালে ফের লোকসভার ভোট। তার আগে শুভেন্দুর এই মন্তব্য ঘিরে ইতিমধ্যে রাজ্য রাজনীতিতে সোরগোল পড়ে গিয়েছে।
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

বিষয়: * মুসলমান * শুভেন্দু * হিন্দু-
সর্বশেষ সংবাদ