আগামী সাধারণ নির্বাচনে জাতীয় পার্টি অবস্থা বুঝে ব্যবস্থা নিবে: জি এম কাদের

শাহজাহান আলী মনন, সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি:
জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মুহাম্মদ কাদের বলেছেন, আগামী সাধারণ নির্বাচনে অবস্থা বুজে ব্যবস্থা নিবো। প্রয়োজনে এককভাবে ৩০০ আসনেই প্রার্থী দেয়া হবে। দেশ, জনগণ ও পার্টির স্বার্থে জোটবদ্ধভাবে অংশগ্রহণে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। যদি জোট করি তাহলে অবশ্যই বড় দলের সাথেই যাবো। যাতে মানুষের জন্য কাজ করতে পারি।
তিনি সোমবার (২৯ মে) বেলা সাড়ে ৩ টায় নীলফামারীর সৈয়দপুর বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এই কথা বলেন। এসময় তিনি আরও বলেন, নীলফামারী-৪ আসনের সৈয়দপুর ও কিশোরগঞ্জ উপজেলায় পার্টির সাংগঠনিক ভিত্তি মজবুত বলেই একাধিক নেতা জাতীয় নির্বাচনে প্রার্থী হতে চায়। এজন্য অবশ্যই তৃণমূলের নেতাকর্মীদের মতামতকে গুরুত্ব দেয়া হবে।
তিনি আরও বলেন, জনসমর্থনহীন ব্যক্তিকে মনোনয়ন দিলে আসন হারানোর আশংকা থাকে। তাই এমন প্রার্থী যেই হোক তাকে বাদ দেয়া হবে। কাউকে চাপিয়ে দেয়া হবেনা। মনোনয়ন বোর্ডই এব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিবে।
বিমানবন্দরে পার্টির প্রেসিডেন্টের সাক্ষাতকার গ্রহনকালে উপস্থিত ছিলেন, সৈয়দপুর উপজেলা জাপার আহবায়ক ইকু গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলহাজ্ব সিদ্দিকুল আলম, কেন্দ্রীয় সদস্য ও সৈয়দপুর পৌর জাপার সদস্য সচিব রাকিব খান, উপজেলা জাপার সদস্য সচিব আলতাফ হোসেন, যুগ্ম আহ্বায়ক শামসুদ্দিন অরুন, জেলা যুব সংহতির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুর রহমান ভুট্টু প্রমুখ।
এর আগে জি এম কাদের রংপুর থেকে সৈয়দপুর বিমানবন্দরে আসার পথে সৈয়দপুর শহরের ক্যান্ট বাজার সংলগ্ন সিএসডি মোড়ে তাঁর গাড়ীবহরের সামনে অবস্থান নেয় জাতীয় পার্টির স্থানীয় নেতৃবৃন্দ সহ বিভিন্ন উর্দূভাষীরা ক্যাম্পবাসীরা।
তারা সৈয়দপুর উপজেলা জাপার আহ্বায়ক শিল্পপতি আলহাজ্ব সিদ্দিকুল আলমকে আগামী নির্বাচনে নীলফামারী-৪ আসনের প্রার্থী মনোনয়নের দাবী জানান। এর প্রেক্ষিতে তিনি বলেন, আপনাদের দাবী বিবেচনা করা হবে এবং সময়মত সঠিক সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।
এসময় তাঁর সাথে ছিলেন, জাপার ভাইস প্রেসিডেন্ট ও নীলফামারী-৪ (সৈয়দপুর-কিশোরগঞ্জ) আসনের বর্তমান এমপি আলহাজ্ব আহসান আদেলুর রহমানসহ রংপুর-লালমনিরহাট ও নীলফামারী জাপার অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

বিষয়: * জাতীয় পার্টি অবস্থা বুঝে ব্যবস্থা নিবে * জি এম কাদের
লাইভ রেডিও
সর্বশেষ সংবাদ