উজিরপুরে তুচ্ছ ঘটনায় হামলার শিকার গর্ভবতী নারী

উজিরপুর প্রতিনিধিঃ
বরিশাল জেলার উজিরপুরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা নারীর পেটে লাথি মেরে গুরুতর আহত করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
অভিযোগ ও আহত সুত্রে জানা যায় উপজেলার শিকারপুর ইউনিয়নের পূর্ব মুন্ডপাশা গ্রামের মোঃ ফয়সাল মৃধাকে একই এলাকার মোঃ সালাম মৃধা গংরা জমিজমা নিয়ে বিভিন্ন ভয়ভীতি ও হুমকি দিয়ে আসছে। এরই প্রেক্ষিতে ২১ মে রবিবার বেলা সাড়ে ১২ টার দিকে পেঁপে গাছ উকড়ে ফেলা নিয়ে সালাম মৃধা, ফয়সাল মৃধার মেয়ে ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা মোসাঃ মুন্নি আক্তারকে বিভিন্ন অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে। এর প্রতিবাদ করায় ক্ষিপ্ত হয়ে মোঃ সালাম মৃধা, মোঃ রাকিব মৃধা, মোসাঃ রিনা বেগম মিলে গর্ভবতী মুন্নি আক্তারের তল পেটে লাথি মারে  এবং এলোপাতাড়ি কিল-ঘুষি মারিয়া শরীরের বিভিন্ন স্থানে যখম করে। এছাড়াও ১০ হাজার টাকা মূল্যের একটি মোবাইল সেট ভেঙে তছনছ করে। আহত মুন্নি আক্তারকে পরিবারের লোকজন মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে উজিরপুর হাসপাতালে ভর্তি করে।
হামলার ঘটনায় আহত’র পিতা ফয়সাল মৃধা বাদী হয়ে ঘটনার দিন উজিরপুর মডেল থানায় উল্লেখ্য অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন। আহত’র পিতা ফয়সাল মৃধা উজিরপুর প্রতিবেদককে জানান জমি জমা বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষ সন্ত্রাসীরা আমার মেয়েদের বিরুদ্ধে মিথ্যা  অপপ্রচার চালাচ্ছে এবং আমার মেয়ে গর্ভবতী মোসাঃ মুন্নি আক্তারের তল পেটে লাথি মারে এবং মারধর করে গুরুত্বর আহত করেছে। এমনকি হামলার ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার জন্য উল্টো মিথ্যা নাটক সাজিয়ে রিনা বেগম হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। অভিযুক্তরা বিষয়টি এড়িয়ে যায়। উজিরপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ কামরুল হাসান জানান অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তীতে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। এদিকে হামলাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার পূর্বক দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি জানিয়ে প্রশাসনের সু-দৃষ্টি কামনা করেছেন ভুক্তভোগী পরিবার।
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

বিষয়: * উজিরপুরে তুচ্ছ ঘটনায় হামলার শিকার * গর্ভবতী নারী
লাইভ রেডিও
সর্বশেষ সংবাদ