বিএনপিকে কিভাবে শৃঙ্খলায় আনতে হয় তা আওয়ামী লীগ জানে : নানক

সদরুল আইনঃ
বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, দেশের উন্নয়ন ও শান্তি-শৃঙ্খলা বিএনপির ভালো লাগে না।
ষড়যন্ত্র পরিহার করে নির্বাচনের পথে আসুন। না হলে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা জানে আপনাদের কিভাবে শৃঙ্খলায় আনতে হবে।
বৃহস্পতিবার রাজধানীর আগারগাঁও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব একাডেমি প্রাঙ্গণে শিক্ষার্থী অভিভাবকদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।
 ১৩ আসনের সাবেক এই সংসদ সদস্য বলেন, আজকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশ যখন মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে। তখন এই ভালো লাগে না পার্টি, তাদের ভালো লাগছে না।
 তাদের আন্তর্জাতিক মোড়ল রয়েছে। সেই আন্তর্জাতিক মোড়ল যারা আমার স্বাধীনতার বিপক্ষে, সপ্তম নৌ-বহর পাঠিয়ে স্বাধীনতাকে পণ্ড করতে দিতে চেয়েছিল, তাদেরও ভালো লাগে না।
 দুনিয়ার কোন দেশের রক্ত চক্ষু বা নিষেধাজ্ঞা দিয়ে কোন লাভ হবে না উল্লেখ করে সাবেক এই প্রতিমন্ত্রী বলেন, এ বাঙালি অদম্য বাঙালি। এগিয়ে যেতে যানে।
এ বাঙালি শক্তিশালী পাকিস্তানি বিরুদ্ধে লড়াই করেছে। এই বাঙালি শেখ হাসিনার নেতৃত্ব গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে জয় করেছে এই বাঙালি জাতিকে কোন ভয় দেখিয়ে লাভ হবে না।
 তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান সকল রক্তচক্ষুকে উপেক্ষা করে এই জননী জন্মভূমি এই বাঙালিকে স্বাধীন ভূখণ্ড উপহার দিয়েছেন। এই ভূখণ্ডের স্বাধীনতা কোন দলের দস্তা বেজ ধরে আসেনি।
এই ভূখণ্ডের স্বাধীনতা প্রেম পত্রের মধ্যদিয়ে আসেনি। এ ভূখণ্ডের স্বাধীনতা কোন স্বপ্ন পদত্ত বাহু স্বর নয়। এর জন্য বঙ্গবন্ধুকে করতে হয়েছে দীর্ঘ ২৩ বছরের লড়াই সংগ্রাম।
বার বার মৃত্যু মুখোমুখি হতে হয়েছে। ফাঁসির কাস্টে যেতে হয়েছে। আমরা সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধ করেছি। সেই সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধ মধ্যদিয়ে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছিল, মুক্তি হয়েছিল। আজ আমরা স্বাধীন দেশের নাগরিক।
আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর এই সদস্য বলেন, আজকে যারা বড় বড় কথা বলে, বাঙালি যদি হেসে খেলে বেড়ায় তাদের ভালো লাগে না। যাদের ভালো লাগে না। তারা পাকিস্তানের পেত্মাতা। পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের উপর এখন অত্যাচার নির্যাতন চলছে।
সাবেক বিশ্ব সেরা ক্রিকেটার ইমরান খান গ্রেফতার হয়ে মুক্তি পেয়ে বলে- বাঙালির উপর ১৯৭১ সালে পাকিস্তানের সেনাবাহিনী নির্মম নির্যাতন করেছে। যেটি ছিল অন্যায়, যেটি ছিল অবিচার। পাকিস্তানের জনগণও এখন চায় সিঙ্গাপুর না হয়ে বাংলাদেশ হতে।
অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন একাডেমির গভর্নিং বোর্ডের সভাপতি প্রফেসর আবদুস সালাম হাওলাদার। এসময় শিক্ষার্থী-অভিভাবকসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীর উপস্থিত ছিলেন।
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

বিষয়: * নানক * বিএনপি
লাইভ রেডিও
সর্বশেষ সংবাদ