আড়াই বছরেও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন ভবন হস্তান্তর করতে পারেনি

দোয়ারাবাজার প্রতিনিধিঃ
সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলা পুরান বাঁশতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বিল্ডিং নির্মাণে ঠিকাদারের বিরুদ্ধে  দায়সারা ও নিম্নমানের কাজের অভিযোগ উঠেছে। নির্মাণ কাজের শুরু থেকে দফায় দফায় চলছে ভাঙাগড়ার দায়সারা কাজ। এ কারণে গত আড়াই বছরেও স্কুল কর্তৃপক্ষের নিকট হস্তান্তর করতে পারেনি বাঁশতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন ভবন। দুই বছর ধরেই পাঠদান চলছে টিনছালার ভাড়াটে এক ভাঙা ঘরে।
সরজমিন গিয়ে জানা যায়, উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়নের পুরান বাঁশতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবন নির্মাণ কাজ শুরু করে মেসার্স দিহান এন্টারপ্রাইজ নামের এক ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। একাডেমিক ভবন নির্মাণে ৮১ লাখ ৪৪ হাজার ৬শ ৩২ টাকায় ওই ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান বরাদ্দ পেয়েছন।
কিন্তু নির্মাণ কাজের শুরুতে নিম্নমানের রড,সিমেন্ট, ইট,বালি ও পাথর দিয়ে কাজ করায় হস্তান্তরের পূর্বেই ফ্লোর সাইডে ফাটল, জানালার গ্রিলের জয়েন্ট খুলে যাচ্ছে। ২০২০ সালের শুরুতে কাজ শুরু হলেও আজোবধি হস্তান্তর করতে পারেনি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। এখনও চলছে ভাঙাগড়ার কাজ।
উপজেলা এলজিইডি অফিস কর্তৃপক্ষ বলছেন, ত্রুটিপূর্ণ কাজ রেখে কোনোওভাবেই ছাড় দেওয়া হবে না। ইতোমধ্যে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে সাইড ফ্লোর ভেঙে পুনরায় কাজ করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।
স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আবু হানিফ বলেন, শুরু থেকে কাজে অনিয়ম এবং লাগাতার ভাঙাগড়ার কাজ করায় বিল্ডিংয়ের অবস্থা খুবই খারাপ। এ ছাড়া দীর্ঘদিনেও কাজ শেষ করে হস্তান্তর না করায় পাঠদানে মারাত্মক বিঘ্ন ঘটছে। শুরু থেকেই একটি ভাড়াটে টিনসেড ঘরে চালাতে হচ্ছে পাঠদান। এখনে বিদ্যুৎ, পানি সরবরাহ এবং শৌচাগারের কোনও ব্যবস্থা নেই। বৃষ্টি হলে ক্লাসে পাঠদান সম্ভব হয় না।
স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা আছমত আলী বলেন, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান দায়সারা ও নিম্নমাণের কাজ করলেও দেখার কেউ নেই। কাজের মান ও গতি নেই।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে মেসার্স দিহান এন্টারপ্রাইজের প্রোপাইটার আবুল কালাম বলেন, বিল্ডিংয়ের ত্রুটি থাকলে তা সমাধান করা হবে। এ বিষয়ে সকল দায়দায়িত্ব উপজেলা এলজিইডি অফিস কর্তৃপক্ষের।
উপজেলা এলজিইডি প্রকৌশলী রাশিদুর রহমান বলেন, স্কুল ভবন নির্মাণে ত্রুটি থাকার বিষয়টি জেনেছি। এ বিষয়গুলো খতিয়ে দেখে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান পুনরায় কাজ না করা পর্যন্ত বরাদ্দ বিল উত্তোলনের সুপারিশ করা হবে না। ##
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
বিষয়: * দোয়ারাবাজার উপজেলা * পুরান বাঁশতলা * সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের * সুনামগঞ্জ
লাইভ রেডিও
সর্বশেষ সংবাদ