ভুরুঙ্গামারীতে বাঘ আতঙ্কে লাঠি হাতে রাত জেগে এলাকাবাসীর পাহাড়া

 

ভূরুঙ্গামারী(কুড়িগ্রাম)প্রতিনিধিঃ

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী  উপজেলার পাথরডুবি ইউনিয়নের সীমান্ত ঘেষা দক্ষিণ বাঁশজানী গ্রামের ঝাকুয়াটারী  এলাকায় বাঘ আতঙ্ক বিরাজ করছে। বাঘের আতঙ্কে এলাকাবাসী  রাত জেগে লাঠি হাতে পাহাড়া দেওয়ার খবর পাওয়া গেছে। হঠাৎ করে দুটি বাঘ ঢুকে পড়ায় এলাকায় আতঙ্ক  ও চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

জানাগেছে, স্থানীয় বাসিন্দা কফিলুর রহমান ও সাহেরা বেগম দম্পতি গত ২৫ মার্চ মধ‍্যে রাতে হঠাৎ বাঘের আওয়াজ  শুনে ঘরের জানালা খুলে বাড়ির প্রবেশ গেটে দুটি বাঘ দেখতে পান। পরে তারা সকালে বিষয়টি সবাইকে জানালে প্রথমে কেউ  বিশ্বাস করেনি। পরের দিন ২৬ মার্চ বিকেলে  আনোয়ার হোসেন নামের এক শিক্ষক তার বাগানে বাঘ সদৃশ‍্য দুটি প্রাণীকে দেখতে পান। শনিবার সন্ধ্যায় ঝাকুয়াটারি সেতুর উপর বাঘ দুটিকে পুনরায় দেখতে পান এলাকাবাসী। এতে এলাকায় আতঙ্ক  ছড়িয়ে পড়ে। শনিবার মধ‍্যরাতে পুনরায় বাঘের আওয়াজ শুনে এলাকাবাসী আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়ে। পরে এলাকাবাসী  একত্রিত হয়ে লাঠি সোটা হাতে নিয়ে আগুন জালিয়ে রাত জেগে পাহাড়া দেন। ধারনা করা হচ্ছে সীমান্তবর্তী  এলাকা হওয়ায়  বাঘ দুটি ভারত থেকে ঢুকে পড়েছে।

প্রত‍্যক্ষদর্শী মইদাম দাখিল মাদরাসার শিক্ষক আনোয়ার হোসেন  জানান, শনিবার (২৬ মার্চ) বাদ মাগরিব তিনি তার বাগানে কালো ডোরাকাটা চিতাবাঘ সদৃশ ২টি প্রানী দেখতে পান।  তবে প্রানী দুটি চিতাবাঘ না অন্যকোন প্রানী সে বিষয়ে তিনি নিশ্চিত হতে পারেননি।

 

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে পাথরডুবী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুস সবুর জানান, বিষয়টি প্রশাসনকে জানানো হয়েছে।

আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি।

ভারতীয় সীমান্ত ঘেষা এলাকার কারনে এমন ঘটনা ঘটতেও পারে। তবে সেটি বাঘ না কি  মেছো বাঘ সেটা তিনি নিশ্চিত করতে পারেননি।

 

ভুরুঙ্গামারী থানার ওসি আলমগীর হোসেন  জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

বনবিভাগের সাথে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব‍্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
বিষয়: * আতঙ্ক * এলাকাবাসী * বাঘ * ভুরুঙ্গামারী
লাইভ রেডিও
সর্বশেষ সংবাদ