সিরাজগঞ্জে টিসিবির ফ্যামিলি কার্ড তৈরীতে টাকা নেওয়ার অভিযোগ

সিরাজগঞ্জ : টিসিবি পণ্যের ফ্যামিলি কার্ড তৈরী করতে টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে সিরাজগঞ্জ পৌরসভার ১০, ১১ ও ১২ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর মোছা. মীরা বেগমের বিরুদ্ধে। টাকা নেওয়ার ৩০ সেকেন্ডের একটি ভিডিও ইতিমধ্যেই সামাজিক যোগাযোগ মধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

ভিডিওতে দেখা গেছে, সিরাজগঞ্জ পৌরসভার ১০, ১১ ও ১২ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর মোছা. মীরা বেগম প্রতি কার্ডের জন্য দুইশত করে টাকা নিয়েছেন বলে অভিযোগ করছেন ভুক্তভোগীরা।

সিরাজগঞ্জ পৌরসভা সুত্রে জানা গেছে, সরকারি সিদ্ধান্ত মোতাবেক পৌরসভা থেকে তালিকা তৈরি করে কার্ডের মাধ্যমে নির্দিষ্ট ব্যক্তিদের কাছে টিসিবির পণ্য বিক্রি করার লক্ষ্যে পৌরসভার ১০, ১১ ও ১২ নং ওয়ার্ডে ২ হাজার ১শত জনের তালিকা তৈরি করা হয়েছে। আর এ তালিকা তৈরির দ্বায়িত্ব সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের কাউন্সিলরদের দেওয়া হয়।

১২নং ওয়ার্ডের ভুক্তভুগী হাওয়া বেগম, জোসনা বেগম আসিয়া খাতুনসহ অনেকেই অভিযোগ করে বলেন, ১০, ১১ ও ১২ নং ওয়ার্ডের মহিলা কাউন্সিলর মোছা. মীরা বেগম আমাদের কাছ থেকে ২শ করে টাকা নিয়েছেন টিসিবির কার্ড তৈরীর কথা বলে। পরে আমরা জানতে পারি সরকার আমাদের এই কার্ড বিনামূল্যে দিয়েছে। সে আমাদের এলাকার কাউন্সিলর তাই তিনি টাকা চেয়েছেন আমরা দিয়ে দিয়েছি বলেও জানান তারা।

তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর মোছা. মীরা বেগম বলেন, আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। আমার সম্মান হানী করতে মহিলাদের দিয়ে এমন ভিডিও করে ফেসবুকে ছরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

সিরাজগঞ্জ পৌরসভার মেয়র সৈয়দ আব্দুর রউফ মুক্তা বলেন, টিসিবির পণ্যের তালিকা ও কার্ড তৈরির জন্য টাকা নেওয়া অন্যায়। কাউন্সিলর মীরা যদি টাকা নিয়ে থাকেন তাহলে তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও উপজেলা টিসিবির পণ্য বিক্রি ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি মাশুকাতে রাব্বি বলেন, টিসিবির পণ্য বিক্রির জন্য ক্রেতার তালিকা তৈরিতে অর্থ আদায়ের কোনো সুযোগ নেই। অবৈধভাবে অর্থ আদায় করা হলে তদন্ত করে তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
বিষয়: * টিসিবি পণ্যে * ফেসবুক * ফ্যামিলি কার্ড * সিরাজগঞ্জ * সিরাজগঞ্জ পৌরসভা
লাইভ রেডিও
সর্বশেষ সংবাদ