পেট্রোবাংলার গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রস্তাবে ভিন্নমত বিইআরসির

সৈয়দ আমিরুজ্জামান, বিশেষ প্রতিনিধি : প্রাকৃতিক গ্যাসের দাম বাড়ানোর যে প্রস্তাব পেট্রোবাংলা দিয়েছিল তাতে মত দেয়নি বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) গঠিত কারিগরি (মূল্যায়ন) কমিটি।
পেট্রোবাংলা বলছে, এ বছর (২০২২ সালে) প্রতি ঘনমিটার গ্যাসের সরবরাহ ব্যয় দাঁড়াবে ১৫ দশমিক ৩০ টাকা, এজন্য ভোক্তা পর্যায়ে এর দাম ২০ দশমিক ৩৫ টাকা করার প্রস্তাব তোলে রাষ্ট্রীয় এ প্রতিষ্ঠান। পেট্রোবাংলার প্রস্তাবের প্রেক্ষিতে মূল্যায়ন কমিটির মনে করছে, এই ব্যয় দাঁড়াবে ১২ দশমিক ৪৭ টাকা।
বর্তমানে গ্রাহক পর্যায়ে প্রতি ঘনমিটার গ্যাস বিক্রি হচ্ছে ৯ টাকা ৩৬ পয়সায়। সেক্ষেত্রে বিইআরসির সুপারিশ করা এই দামের (১২ দশমিক ৪৭ টাকা) সঙ্গে ভ্যাট ও অন্যান্য চার্জ যোগ হয়ে গ্রাহক পর্যায়ে দাম নির্ধারিত হবে।
সোমবার (২১ মার্চ ২০২২) রাজধানীর বিয়াম অডিটরিয়ামে বিতরণ কোম্পানিগুলোর গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রস্তাবের পরিপ্রেক্ষিতে গণশুনানিতে এ মতামত তুলে ধরে কারিগরি মূল্যায়ন কমিটি।
চারদিনের গণশুনানির পর ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে গ্যাসের নতুন দাম জানাবে বিইআরসি।
গণশুনানির প্রথম দিনে উপস্থিত ছিলেন বিইআরসির চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল, সদস্য মকবুল ই ইলাহী চৌধুরী, বজলুর রহমান, মোহাম্মদ আবু ফারুক। এছাড়া পেট্রোবাংলার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও আমন্ত্রিত অতিথিরা উপস্থিত ছিলেন।
কমিটির পক্ষ থেকে মূল্যায়ন কমিটির প্রধান দিদারুল আলম বলেন, ‘আমরা ২০২১-২০২২ অর্থবছরের গ্যাস আমদানির রিয়েল ডাটা যাচাই করেছি। সে হিসাবেই এই দামের সুপারিশ করেছি।’
২০১৯ সালে সবশেষ গ্যাসের দাম বাড়ানোর আদেশে পাইকারি দাম প্রতি ঘনমিটার ১২ দশমিক ৬০ টাকা করা হয়। এর মধ্যে ভর্তুকি দিয়ে প্রতি ইউনিট ৯ দশমিক ৩৭ টাকায় বিক্রির নির্দেশ দেয় বিইআরসি। পেট্রোবাংলা বলছে, এ বছর প্রতি ঘনমিটার গ্যাসের সরবরাহ ব্যয় দাঁড়াবে ১৫ দশমিক ৩০ টাকা, এজন্য ভোক্তা পর্যায়ে এর দাম ২০ দশমিক ৩৫ টাকা করার প্রস্তাব তোলে রাষ্ট্রীয় এ প্রতিষ্ঠান।
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
বিষয়: * গ্যাসের দাম * পেট্রোবাংলা * বিইআরসি
লাইভ রেডিও
সর্বশেষ সংবাদ