মৃত্যুর আগে তালিকায় নাম দেখে যেতে চান মুক্তিযোদ্ধা মাহাতাব খান

স্বাধীনতার ৫০ বছরেও মেলেনি স্বীকৃতি

আবু-হানিফ, বাগেরহাট অফিসঃ
বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলার রায়েন্দা ইউনিয়নের সুন্দরবন ঘেঁষা দক্ষিণ রাজাপুর গ্রামের মৃত মেছের খানের ছেলে মাহাতাব উদ্দিন খান (৭৯)। একজন সক্রিয় মুক্তিযোদ্ধা। তাঁর সহযোদ্ধারাও স্বীকার করেছেন বেশ কয়েকটি যুদ্ধে তাদের সঙ্গে অংগ্রহন করেছেন তিনি। কিন্তু স্বাধীনতার ৫০ বছরেও মুক্তিযোদ্ধার তালিকায় নাম ওঠেনি তাঁর। হতদরিদ্র এই মুক্তিযোদ্ধা স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে ১০ বছর ধরে শয্যাসায়ী। টাকার অভাবে চিকিৎসাও চালাতে পারছে না তাঁর পরিবার। জীবন সায়াহ্নে এসে মাহাতাব খানের শেষ ইচ্ছা, তিনি মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি নিয়ে যাতে মরতে পারেন সেই দাবি জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর কাছে।

পরিবারের অভিযোগ, তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করার জন্য দুই বছর আগে এক লাখ টাকাও নিয়েছেন এক মুক্তিযোদ্ধা নেতা। কিন্তু, আদৌ তালিকাভুক্ত করাতে পারবেন কিনা তার কোনো নিশ্চয়তাও দেননি। চেষ্টা করছি, দেখবো-দেখছি বলে তাদেরকে শান্তনা দিয়ে যাচ্ছেন ওই মুক্তিযোদ্ধা নেতা।

তবে, টাকা গ্রহনের অভিযোগ অস্বীকার করে মুক্তিযোদ্ধা নেতা, যুদ্ধকালিন কমান্ডার ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক সহকারী কমান্ডার (সাংগঠনিক) মো. হারুন অর রশিদ খান বলেন, মাহাতাব খান আমার অধিনেই যুদ্ধ করেছেন। কিন্তু, যুদ্ধের প্রমানাদি নষ্ট হওয়ায় এতোদিন তিনি মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে স্বীকৃতি পাননি। উপজেলা কমিটির যাচাই বাছাইয়ে তাঁর নাম ‘খ’ তালিকায় উঠেছে। তিনি যাতে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে তালিকাভুক্ত হন, সেব্যাপারে চেষ্টা করে যাচ্ছি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
বিষয়: * মাহাতাব খান * মুক্তিযোদ্ধা * স্বাধীনতা * স্বীকৃতি
লাইভ রেডিও
সর্বশেষ সংবাদ