খেতাবপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের বীরত্ব গাথা গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন

বিশেষ প্রতিনিধিঃ বঙ্গবন্ধুর সরকার মুক্তিযুদ্ধে বীরত্বপূর্ণ ভূমিকা পালনের জন্য বিভিন্ন সেক্টরের দুঃসাহসী মুক্তিযোদ্ধাকে ১৯৭৩ সালে বিভিন্ন খেতাবে ভূষিত করে তাদের নামের তালিকা গেজেটভুক্ত করেন। খেতাবপ্রাপ্ত বীর ছিলো, কিন্তু খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধার তালিকায় তাদের নাম অন্তর্ভুক্ত হয়নি, তাদের অবদান কোনো অংশে কম ছিলো না। ‘খেতাবপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের বীরত্ব গাথা’ গ্রন্থটিতে তাদের বিস্তারিত তুলে ধরা হয়েছে।
সাহসী মুক্তিযোদ্ধাদের নামের সঙ্গে তাদের প্রাপ্ত খেতাব যুক্ত হলেও তাদের মুক্তিযুদ্ধে অবদান থেকে গেছে আড়ালে। খেতাবপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের বীরত্ব গাথা গ্রন্থে স্বাধীনতা যুদ্ধে খেতাবপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সেই অনন্য অবদানের ইতিহাস তুলে ধরেছেন অদম্য মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ মো. শাহজাহান কবির বীরপ্রতীক।
এই গ্রন্থের প্রথম অংশে মুক্তিযুদ্ধের সাংগঠনিক কাঠামো, ১১টি সেক্টর কমান্ডারদের নাম ও সেক্টর এলাকাসহ ৩টি ব্রিগেড ফোর্সের বিবরণ, ১১টি সেক্টরের অধীনে সাব-সেক্টর কমান্ডারদের নাম ও এলাকার বিবরণ লিপিবদ্ধ করা হয়েছে। দ্বিতীয় অংশে ৭ জন বীরশ্রেষ্ঠ, তৃতীয় অংশে ৩৪ জন বীরউত্তম, চতুর্থ অংশে ৪৬ জন বীরবিক্রম ও শেষাংশে ২১৪ জন বীরপ্রতীকের দুঃসাহসিক যুদ্ধের কাহিনি তুলে ধরা হয়েছে।
‘খেতাবপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের বীরত্ব গাথা’মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী আ,ক,ম মোজাম্মেল হক এম পি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযদ্ধের সাব সেক্টর কমান্ডার মাহবুব উদ্দিন আহমেদ।
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
বিষয়: * গ্রন্থ মুক্তিযোদ্ধা বীরত্ব গাথা মোড়ক উন্মোচন খেতাবপ্রাপ্ত