গাইবান্ধায় মোবাইলের জন্য শিশুকে গলা টিপে হত্যার অভিযোগ

 

 

শেখ মো: আতিকুর রহমান আতিক, গাইবান্ধা :

 

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার শান্তিরাম ইউনিয়নে ধার দেয়া মোবাইল ফেরত না পেয়ে মারুফ (১২) নামে এক শিশুকে গলা টিপে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তাহের (২০) নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে। ৭ জানুয়ারী শুক্রবার বিকেলে  উপজেলার শান্তিরাম ইউনিয়নের খালেকের মোড় নামক স্থানে এ চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটে।

নিহত মারুফ উক্ত এলাকার আনারুল ইসলামের ছেলে এবং স্থানীয় কছর আলী মাদ্রাসার ষষ্ঠ শ্রেনীর শিক্ষার্থী। অপর দিকে আসামি তাহের একই গ্রামের ফুল মিয়ার ছেলে।

সুন্দরগঞ্জ থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) আব্দুল আজিজ  ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আজ থেকে প্রায় দুই মাস আগে ৫ম শ্রেণীর পরীক্ষার প্রস্তুতির জন্য নিহত মারুফ দূরসম্পর্কের ফুফাতো ভাই তাহেরের কাছ থেকে একটি মোবাইল ফোন ধার নেয়। এর কিছুদিন পর সেই ফোন নিয়ে ঢাকায় যায় মারুফের বাবা আনারুল ইসলাম। এরই জেরে মারুফকে নিজ বাসায় ডেকে নিয়ে যায় তাহের। সেখানে তাহেরের সাথে মারুফের বয়সী আরও দুজন ছিল। এরমধ্যে একজনের নাম আলমগীর (১৩)। সেসময় মোবাইল নিয়ে মারুফের সাথে কথা-কাটাকাটির এক পর্যায়ে তাহের মারুফের গলা টিপে হত্যা করে। এ দৃশ্য দেখে আলমগীর দৌঁড়ে এসে মারুফের বাড়ির সবাইকে বলে দেয়। পরে সেখানে গিয়ে মারুফের নিথর দেহ পরে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনা স্থল থেকে মারুফের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। সেইসাথে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আলমগীরকেও পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
বিষয়: * গাইবান্ধা * মোবাইল * শিশুকে গলা টিপে হত্যা
লাইভ রেডিও
সর্বশেষ সংবাদ