তুরাগ নদীতে ট্রলারডুবি: ৪ শিশু ১ নারীসহ ৫ জনের মরদেহ উদ্ধার, নিখোঁজ – ২

এস, এম, মনির হোসেন জীবন

রাজধানীর অদূরে আমিন বাজার এলাকায় তুরাগ নদীতে যাএী- বাহী ট্রলারডুবির ঘটনায় আজ বিকেল সোয়া ৫ টা পর্যন্ত মোট ৫ জনের মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। নিহতদের মধ্যে একজন নারী ও বাকী ৪ জন শিশু । এ দুর্ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ২ জন নিখোঁজ রয়েছেন। তাদের উদ্ধারে ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ডুবুরি দল ও সাভার ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা তাদের উদ্বারের জন্য কাজ করে যাচেছন । তবে, এখনও পর্যন্ত নিহতদের তাদের নাম ও বিস্তারিত পরিচয় জানা যায়নি। আজ শনিবার বিকেল সোয়া ৫ টায় ফায়ার সার্ভিস সদর দপ্তরের ডিউটি অফিসার খালেদা ইয়াসমিন দ্যা ডেইলি এশিয়ান টাইমসকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, শনিবার সকাল ৮টা ৫০ মিনিটে আমিন বাজার এলাকায় তুরাগ নদীতে একটি যাএীবাহী ট্রলারডুবির খবর পেয়ে সেখানে ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ডুবুরি দলকে আমিন বাজারে তুরাগ নদীতে পাঠানো হয়েছে। পরে সেখানে উদ্বার অংশ নেয় সাভার ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। আজ সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত একটানা অভিযান চালিয়ে নিখোজ ৭ জনের মধ্যে ৫ জনের মরদেহ উদ্বার করা হয়েছে। এখনও দুই জন নিখোজ রয়েছেন। তাদেরকে উদ্ধারের জন্য অভিযান চলমান রয়েছে। ফায়ার সার্ভিসের এ কর্মকর্তা আরও বলেন, আজ ভোর সাড়ে ৫ টার দিকে তুরাগ নদীতে যাএীবাহী একটি ট্রলারের সাথে বুলগ্রেট এর সজোরে ধাক্কা লাগলে এ ঘটনা ঘটে। আমরা সকাল ৮ টা ৫০ মিনিটের দিকে এ দু্র্ঘটনার খবর পাই। এর পর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্হলে পৌছে ৯ টা ৫০ মিনিটের সময় উদ্বার কাজ শুরু করেন। এদিকে, ফায়ার সার্ভিস সদর দপ্তরের ডিউটি অফিসার লিমা খানম সকালে দ্যা ডেইলি এশিয়ান টাইমসকে জানান, আমরা স্হানীয় লোকজনের নিকট থেকে জানতে পেরেছি, ওই যাএীবাহী ট্রলারে নারী, শিশুসহ মোট ১৮ জন ছিলেন। তাদের মধ্যে সাত জন নিখোজ ছিল। বাকীরা সকলে সাতরে তীরে উঠে যায়। আজ দুপুর পর্যন্ত দুই শিশু ও এক নারীসহ তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি। তিনি আরো বলেন, দু্র্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্হলে গেছেন, ফায়ার সার্ভিসের উপ- সহকারী পরিচালক মো, আবুল বাশার ও সহকারী পরিচালক ঢাকা আব্দুল হালিম। এ অভিযানে নেতৃত্ব দিচ্ছেন আব্দুল হালিম। ফায়ার সার্ভিসের এ কর্মকর্তা আরো জানান, দু্র্ঘটনা কবলিত যাএীবাহী ট্রলার ও বুলগ্রেট টি সনাক্ত করার চেষ্টা চলছে। আজ দুপুর ১ টা ১৩ মিনিটের সময় একটি সনাক্ত করা হয়। বিস্তারিত পরে জানানো হবে। ইতিমধ্যে ৫ জনের মরদেহ উদ্বারের পর নৌ পুলিশের নিকট নিহতদের লাশ হস্তান্তর করা হবে। এবিষয়ে কোন তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে কি না প্রশ্ন করা হলে লিমা খানম বলেন, অভিযান শেষে উধর্বতন কর্মকর্তারা ফিরে এবিষয়ে সিদ্বান্ত নিবেন। পরবর্তীতে এবিষয়ে জানানো হবে। আজ বিকেলে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত উদ্বার কাজ চলছিল।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
বিষয়: * টঙ্গী