নিজ নিজ এলাকার রেলওয়ের কাজ তদারকি করতে চান সংসদীয় কমিটির সদস্যরা

নিজ নিজ নির্বাচনী এলাকার রেলওয়ের উন্নয়ন কাজ তদারকি করতে চান রেলপথ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সদস্যরা। সেজন্য সংসদ সদস্যরা তাদের নির্বাচনী এলাকায় রেলওয়ের উন্নয়ন কাজের তথ্য চেয়েছেন।

আজ মঙ্গলবার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত রেলপথ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় বৈঠকের কার্যপত্র থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

কার্যপত্রে দেখা গেছে, কমিটির আগের বৈঠকে স্থায়ী কমিটির সদস্যরা তার নির্বাচনী এলাকার রেলওয়ের উন্নয়ন কাজের তদারকি করবে বলে মতামত প্রকাশ করেন।

সুপারিশ বাস্তবায়নের অগ্রগতি হিসেবে আজ বৈঠকে মন্ত্রণায়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়, নির্বাচনী এলাকায় রেলওয়ের উন্নয়ন কাজের বিষয়ে তথ্য স্থায়ী কমিটির সদস্যদের কাছে সরবরাহ করা হবে। সংশ্লিষ্ট প্রকল্প পরিচালকরা সংসদ সদস্যদের তদারকি কাজে সহযোগিতা করবে বলেও মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে।

আগের বৈঠকের কার্যবিবরণী থেকে কমিটির সভাপতি এ বি এম ফজলে করিম চৌধুরী নিজেই এই প্রসঙ্গটি তুলেছিলেন

সেসময় তিনি আশির দশকে নির্মিত চট্টগ্রাম রেলস্টেশনটি জরাজীর্ণ রয়েছে উল্লেখ করে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তখন কমিটির সদস্য সাইফুজ্জামান বলেন, চট্টগ্রাম স্টেশনটি অত্যন্ত নিম্নমানের মনে হয়। বাসস্টেশনও এর চেয়ে ভালো।

বৈঠকে সংসদীয় কমিটি রেলওয়ের উন্নয়ন প্রকল্পগুলো বাস্তবায়ন ও সরঞ্জাম সংগ্রহের ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট কোনো দেশের ওপর নির্ভর না করে আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতার মাধ্যমে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান নির্বাচনের সুপারিশ করেছে।

কমিটি রেলওয়ে কল্যাণ ট্রাস্টের প্রকল্প গ্রহণের আগে সম্ভাব্যতা যাচাই করে লাভজনক প্রকল্প গ্রহণের সুপারিশ করে। কল্যাণ ট্রাস্টের নিজস্ব অর্থ ব্যয় না করে শেয়ারিং অথবা জয়েন্ট ভেঞ্চার পদ্ধতিতে অবকাঠামোগত উন্নয়নের সুপারিশও করেছে কমিটি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
বিষয়: * রেলওয়ে * সংসদীয় কমিটি