ফোনালাপ বিকৃত, দাবি ভিকারুননিসার অধ্যক্ষের

        

অবৈধভাবে শিক্ষার্থী ভর্তি, শিক্ষক নিয়োগের সুযোগ বন্ধ করে দেয়ায় একটি সিন্ডিকেট ষড়যন্ত্র চালাচ্ছে বলে দাবি করেছেন ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ কামরুন নাহার। তিনি বলছেন ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে এডিট করে এই ফোনো রেকর্ড সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়ানো হচ্ছে।

ভিকারুননিসা স্কুল অ্যান্ড কলেজে ভর্তি নিয়ে অনিয়মের অভিযোগ দীর্ঘদিনের। এরই মধ্যে চলতি বছরের শুরুর দিকে অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব নেন সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারের কর্মকর্তা কামরুন নাহার।

ভিকারুননিসার বর্তমান অধ্যক্ষের সঙ্গে অভিভাবক মীর সাহাবুদ্দিন টিপুর ফোনো রেকর্ড ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। এতে অধ্যক্ষকে অশোভন ভাষায় উত্তেজিত কন্ঠে কথা বলতে শোনা যায়।

তবে ফোনালাপ এডিট করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন অধ্যক্ষ কামরুন নাহারের। অধ্যক্ষের দাবি, দায়িত্ব নেয়ার পর থেকেই কিছু অভিভাবকের একটি সিন্ডিকেট অবৈধভাবে শিক্ষার্থী ভর্তির জন্য তাকে চাপ দেয়। এছাড়াও বিনা দরপত্রে চলা উন্নয়ন কাজ স্থগিত করায় তাকে নানাভাবে হুমকি দেয়া হয়।

এদিকে, অধ্যক্ষের অভিযোগকে অসত্য দাবি করেছেন অভিভাবক সমিতির নেতা মীর সাহাবুদ্দিন টিপু। তবে অধ্যক্ষের সাথে তার ব্যক্তিগত ফোনালাপ কিভাবে ফেসবুকে গেল সে বিষয়ে স্পষ্ট করে তিনি কিছু বলতে পারেননি।

স্কুলের উন্নয়নমূলক কাজে অনিয়মের বিষয়ে শিক্ষামন্ত্রণালয়ে অভিযোগ দিয়েছে কলেজ কতৃপক্ষ। এ নিয়ে চলছে তদন্ত।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন