লিটনের শতকে লড়াইয়ে বাংলাদেশ

       
ওয়ানডেতে নিজের চতুর্থ সেঞ্চুরি তুলে নিলেন লিটন দাস। ৪০তম ওভারে মাধভেরের বলে ১ রান নিয়ে তিন অঙ্কের দেখা পান তিনি। ১১২ বলে ১০২ রানে অপরাজিত লিটন। ৮টি চার মারেন তিনি। ৪০তম ওভার শেষে বাংলাদেশের স্কোর ৫ উইকেটে ১৯৯ রান।

৭৪ রানে ৪ উইকেট হারিয়েছিল বাংলাদেশ। লিটনের সঙ্গে মাহমুদউল্লাহর জুটিতে এরপর এগোচ্ছিল বাংলাদেশ। দুজনের জুটি ছুঁয়ে ফেলল ফিফটি। জুটিতে মূল ভূমিকা পালন করছেন লিটন, ভাল সমর্থন দেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। কিন্তু ৩৬তম ওভারে রিয়াদ আউট হয়ে যান।

একাদশে ফিরলেন, ওপেনিংয়ে ফিরলেন। ফিফটিও পেয়ে গেলেন লিটন। ৭৮ বলে ক্যারিয়ারের চতুর্থ ফিফটি পূর্ণ করেছেন তিনি। মাহমুদউল্লাহর সঙ্গে তাঁর জুটি উদ্ধার করার চেষ্টা করছে বাংলাদেশকে। ২০২০ সালের মার্চে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেই শেষ ফিফটি পেরোনো ইনিংস খেলেছিলেন লিটন। সিলেটে করেছিলেন ১৭৬ রান। তবে এরপর ৮ ইনিংসে ২৫ রানই পেরোতে পারেননি তিনি। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সর্বশেষ সিরিজের শেষ ম্যাচে বাদই পড়েছিলেন। সেই খরা আজ কাটালেন তিনি।

২৫.৩ ওভারে ৪ উইকেটে ১০০ রান তুলেছে বাংলাদেশ। উইকেটে রয়েছেন লিটন। অন্য প্রান্তে তাঁর সঙ্গী মাহমুদউল্লাহ। দুই স্পিনার রায়ার্ন বার্ল ও ওয়েসলি মাধভেরেকে আক্রমণে এনেছেন জিম্বাবুয়ে অধিনায়ক ব্রেন্ডন টেলর। ২৬ ওভার শেষে বাংলাদেশের স্কোর ৪ উইকেটে ১০২।

জিম্বাবুয়ের পেসাররা উইকেট থেকে বাউন্স পাচ্ছেন। অফ স্টাম্পের বাইরের উঠে আসা বলে কাট করতে গিয়ে আউট মোসাদ্দেক। ১৫ বল খেলে ৫ রান করে ফিরলেন তিনি। জুটি গড়তে পারছে না বাংলাদেশ। ৮০ রানের কোটায় পৌঁছানোর আগেই নেই ৪ উইকেট! ১৯ ওভার শেষে বাংলাদেশ ৪ উইকেটে ৭৪ রান তুলেছে। উইকেটে লিটনের সঙ্গী মাহমুদউল্লাহ।

অফ স্টাম্পের একটু বাইরের বল থার্ডম্যানে পাঠাতে গিয়ে খোঁচা মারার অভ্যাস মোহাম্মদ মিঠুনের জন্য নতুন কিছু নয়। চাতারার করা ১৪তম ওভারের চতুর্থ বলে ঠিক এই শট খেলতে গিয়ে জিম্বাবুয়ে উইকেটকিপার চাকাভাকে ক্যাচ দেন মিঠুন (১৯ বলে ১০)। ভালো শুরু পেয়েও উইকেটে থিতু হতে পারলেন না। তাঁর আউটে বিপদ আরো বাড়ে বাংলাদেশের। ১৪ ওভার শেষে বাংলাদেশ ৩ উইকেটে ৫৭।

প্রিয় স্কয়ার কাট তুলে খেলতে গিয়ে আউট সাকিব। মুজারাবানি তুলে নিলেন ম্যাচে তাঁর দ্বিতীয় শিকার। ২৫ বলে ১৯ রান করে আউট হলেন সাকিব। লিটনের সঙ্গে ৩৭ বলে ৩২ রানের জুটি গড়েছেন তিনি। ৮.২ ওভার শেষে ২ উইকেটে ৩২ রান তুলেছে বাংলাদেশ।

প্রথম উইকেট হিসেবে তামিম আউট হন শূন্য রানে তৃতীয় ওভারে। এ নিয়ে ৩৪তম বার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে শূন্য রানে আউট হলেন তামিম। বাংলাদেশের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি শূন্যের তালিকায় মাশরাফি বিন মুর্তজাকে ছাড়িয়ে গেলেন তিনি। ইনিংসের তৃতীয় ওভারে ব্লেসিং মুজারাবানির লাফিয়ে ওঠা বলে ব্যাট চালিয়ে কট-বিহাইন্ড হয়েছেন তিনি। ৭ বল খেলে রানের খাতা খুলতে পারেননি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
লাইভ রেডিও
সর্বশেষ সংবাদ