আফগানিস্তান থেকে সেনা সরানোর সিদ্ধান্ত ভুল: বুশ

                                                                                                         জর্জ ডব্লিউ বুশ। ছবি: সংগৃহীত

মার্কিন ও ন্যাটো সেনাদের আফগানিস্তান থেকে সরিয়ে ফেলার সিদ্ধান্তের সমাচলোনা করছেন অনেকে। এবার তাতে যোগ হলেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশ। তিনি দাবি করেন, এমন সিদ্ধান্তের কারণে কট্টরপন্থী তালেবান গোষ্ঠীর হত্যাকাণ্ডের মুখে পড়তে হবে আফগানিস্তানের নিরীহ মানুষদের। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে এনডিটিভি।

চলতি বছরের জুনে আফগানিস্তান থেকে চূড়ান্ত পর্যায়ে সেনা প্রত্যাহার প্রক্রিয়া শুরু করেছে যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটো। আগামী ১১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে দেশটি থেকে সব সেনা সরিয়ে নেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে।

আজ বুধবার (১৪ জুলাই) ডয়চে ভেলেকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বুশ বলেন, ‘অবর্ণনীয় কষ্টের মুখে পড়তে যাচ্ছে আফগানিস্তানের নারী ও শিশুরা। সেনা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত ভুল। নীরিহ আফগানিদের কট্টরপন্থী তালেবান গোষ্ঠীর শিকার হওয়ার জন্য ছেড়ে দেওয়া হলো। এ সিদ্ধান্ত আমার মন ভেঙে দিচ্ছে।’

জানা যায়, চলতি বছরের এপ্রিলে আফগানিস্তান থেকে চূড়ান্ত ধাপে সেনা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তের কথা জানান বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। সে সময় দেশটিতে আড়াই হাজার মার্কিন সেনা এবং সাড়ে ৭ হাজার ন্যাটো সেনাসদস্য অবস্থান করছিলেন।

 

এদিকে, মার্কিন ও ন্যাটো বাহিনীর সদস্যরা আফগানিস্তান ছাড়তে শুরু করার পর থেকে আফগানিস্তানে সংঘাত বেড়েছে। তালেবান চাইছে পশ্চিমা-সমর্থিত আফগান সরকারকে উৎখাত করতে। এর জের ধরে আফগান সেনাদের সঙ্গে সংঘর্ষের জেরে হতাহত হয়েছে বহু। আফগানিস্তানের বেশির ভাগ অঞ্চল দখলের দাবি করেছে তালেবান। এ কারণে আফগান বাহিনীর সদস্যরা দেশ ছেড়ে পালাতেও বাধ্য হচ্ছেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন