মিয়ানমারে আটক অবস্থায় জান্তা বিরোধী কবির মৃত্যু

মিয়ানমারে সামরিক জান্তা বিরোধী হিসেবে পরিচিত এক কবি গ্রেপ্তার অবস্থায় মারা গেছেন।

রোববার ৪৪ বছর বয়সী খাত থির মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করেছে তার পরিবার।

রয়টার্স জানিয়েছে, রাতে মৃত্যু হয়েছে এই কবির। মৃত্যুর পর তার শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ নিয়ে নেওয়া হয়েছে।

‘তারা মাথায় গুলি করেছিল, কিন্তু তারা তো জানে না বিপ্লব থাকে হৃদয়ে’- এই উক্তির লেখক খাতের মৃত্যুতে ক্ষোভে ফুঁসছে বিক্ষোভকারীরা।

শনিবার তিনি ও তার স্বামীকে অস্ত্রধারী সেনা সদস্যরা জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে যায় বলে জানিয়েছেন কবি খাতের স্ত্রী চাও সু।

তিনি বলেন, আমাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। খাতকেও করা হয়। তারা জানিয়েছিল; তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। কিন্তু তিনি আর ফিরলেন না। তার মৃতদেহ ফিরে এলো।

গত ফেব্রুয়ারিতে নির্বাচিত সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করে ক্ষমতায় বসে সামরিক শাসক। ওই সময় এনএলডি নেত্রী অং সান সু চিসহ বেশি কিছু নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়। তখন থেকেই সামরিক জান্তার দমন পীড়ন চলছে।

একদিনে মিয়ানমারে চলছে সেনা বাহিনীর দমন পীড়ন; অন্যদিকে চলছে বিক্ষুব্ধদের আন্দোলন। এ পর্যন্ত অন্ততত ৭৭৬ জনকে হত্যা করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। সেনাদের বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়া কবি খাতের মৃত্যুর মধ্যদিয়ে দেশটিতে সেনাবিরোধী তিনজন কবির মৃত্যু হলো।

 

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন