৫০টি অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে ভারতে আসতে চায় পাকিস্তান

 

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কায় সংক্রমণের হার কমছেই না। তার মধ্যে অক্সিজেনের ঘাটতিতে মৃত্যুর আতঙ্ককে আরও বাড়িয়ে তুলেছে। বিবাদ ভুলে এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতে এক দেশ আরেক দেশের দিকে হাত বাড়িয়ে দিচ্ছে। করোনায় বিপর্যস্ত ভারতের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়েছে দিয়েছে প্রতিবেশী পাকিস্তানও। একই সঙ্গে দেশটির রোগমুক্তির জন্য প্রার্থনা করছে। 

পাকিস্তানের এক মানবতাবাদী সংগঠন ‘এধি ফাউন্ডেশনে’র সভাপতি ফইজল এধি শুক্রবার একটি চিঠি লিখেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে। সেই চিঠিতে তিনি জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রীর অনুমতি নিয়ে তারা তাদের স্বেচ্ছাসেবী ও ৫০টি অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে ভারতে আসতে চান। গোটা দলকে নেতৃত্ব দেবেন ফইজল।

চিঠিতে তিনি লিখেছেন, ‘আপনাদের দেশে অতিমারির যে ভয়ংকর প্রভাব পড়েছে সে কথা জেনে আমরা অত্যন্ত দুঃখিত। বহু মানুষই কষ্ট পাচ্ছেন। এই পরিস্থিতিতে আমরা ৫০টি অ্যাম্বুলেন্সসহ আমাদের সংগঠনের পক্ষে আপনাদের সাহায্য করতে চাই।’

সেই সঙ্গে চিঠিতে তিনি স্পষ্ট করে দিয়েছেন, কেবল ভারতে প্রবেশ করার অনুমতিটুকু ছাড়া আর কোনও রকম সাহায্য তাদের সংগঠন চাইছে না। তিনি লিখেছেন, আমাদের দলের জন্য প্রয়োজনীয় খাদ্য, জ্বালানি ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী সব ব্যবস্থাই আমরা করব। আমাদের কেবল আপনার অনুমতি ও স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনের সাহায্যটুকু প্রয়োজন।

কেবল এধি ফাউন্ডেশনই নয়, গোটা পাকিস্তানই কার্যত পাশে থাকার বার্তা দিয়েছে। সে দেশের টুইটারে ট্রেন্ডিং হয়ে গেছে #IndiaNeedsOxygen। এমনকি অনেকেই পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকেও আরজি জা‌নিয়েছেন, ভারতকে প্রয়োজনীয় সাহায্য করার জন্য। টুইটারসহ সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেক সাধারণ পাকিস্তানি নাগরিককেই ভারতের জন্য প্রার্থনা করার কথা জানাতে দেখা গেছে।

ভারতে আবারও একদিনে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর নতুন রেকর্ড হয়েছে। সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে শনাক্ত হয়েছে রেকর্ড প্রায় সাড়ে তিন লাখ এবং মারা গেছেন ২৬শ’র বেশি।

সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

 

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন