নীলফামারীতে ‘খামারি’ মোবাইল অ্যাপের কার্যকারিতা বিষয়ক মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত

 

নীলফামারী প্রতিনিধি:

নীলফামারীতে ‘খামারি’ মোবাইল অ্যাপের কার্যকারিতা যাচাইয়ে উচ্চ ফলনশীল বোরো ধানের প্রদর্শনী ও পানি সাশ্রয়ী সেচ প্রযুক্তি প্রদর্শনী ট্রায়েলের মাঠ দিবস হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৯ মে/২৪) বিকালে জলঢাকা উপজেলার খালিশা খুটামারা এলাকায় মাঠ দিবসের প্রধান অতিথি ছিলেন নীলফামারী-৩ আসনের সংসদ সদস্য মোঃ সাদ্দাম হোসেন পাভেল।

তিনি বলেন, ‘খামারি’ মোবাইল অ্যাপ এখন কৃষকের বন্ধু। এই অ্যাপ ব্যবহারের মাধ্যমে খরচ কমবে ও ফসলের উৎপাদন বাড়বে। কারণ এ অ্যাপের মাধ্যমে মাটির গুণগত মান, মাটিতে কোন ধান বপন করলে ফলন ভালো হবে এবং কী পরিমাণ সার দিতে হবে তা জানা যাবে। এ অ্যাপের মাধ্যমে আবহাওয়া সম্পর্কেও ধারণা লাভ করতে পারবে কৃষক।

সংসদ সদস্য বলেন, আগে কৃষকেরা লাঙ্গন দিয়ে জমি চাষ করতো। সেই লাঙ্গন এখন জাদুঘরে রয়েছে। এখন মেশিন দিয়ে জমি চাষ করছে কৃষকরা। এমনকি ফসল উৎপাদনের পর তা কর্তনও করা হচ্ছে মেশিন দিয়ে। কৃষি বান্ধব সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কৃষিকে নতুন নতুন প্রযুক্তির মাধ্যমে অধিক ফসল উৎপাদনে কৃষকদের সহায়তা করে যাচ্ছেন।

এছাড়াও কৃষি যান্ত্রিকীকরণ প্রকল্পের আওতায় ৫০ শতাংশ ভর্তুকি মূল্যে কৃষকদের মাঝে কৃষি যন্ত্রপাতি বিতরণ কার্যক্রম চলমান আছে। কৃষি গবেষণা কাউন্সিল ও জলঢাকা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে মাঠ দিবসের সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার জি,আর সারোয়ার। কৃষি মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে জলঢাকা অতিরিক্ত কৃষি অফিসার কৃষিবিদ আহসান হাবিবের সঞ্চালনায় এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক (উদ্যান) কৃষিবিদ আব্দুল্লাহ আল মামুন, উপ-পরিচালক (উদ্ভিদ সংরক্ষন) কৃষিবিদ শাহীনা বেগম, ঢাকা কৃষি গবেষণা কাউন্সিলের কর্মকর্তা কৃষিবিদ রিয়াজুল হকসহ অনেকে। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ সুমন আহমেদ।
পরে সেখানে কম্বাইন হারভেস্টার যন্ত্রের মাধ্যমে ৪ হাজার হেক্টর জমির উচ্চ ফলনশীল বোরো ধান কর্তনের উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

বিষয়: * খামারি * নীলফামারী * মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত
সর্বশেষ সংবাদ