দেশে আইন পাশ হয়েছে; সেই আইন শ্রমিকদের পক্ষে পাশ হয় নাই: বীর মুক্তিযোদ্ধা ওসমান আলী খান

জাবেদ শেখ, শরীয়তপুর প্রতিনিধি:
শরীয়তপুর আন্তঃ জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের ত্রি-বর্ষিক সাধারন সভা অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা বাংলাদেশ শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা ওসমান আলী খান তিনি ‘শ্রম আইন’ সম্পর্কে শ্রমিকদের উদেশ্যে বলেন, সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ । আমাদের দেশে আইন পাশ হয়েছে। সেই আইন শ্রমিকদের পক্ষে পাশ হয় নাই। সেই আইনে শ্রমিকদের যাবজ্জীবন সাজা রাখা হয়েছে। সেই আইনে জামিন অযোগ্য আইন করেছে, ৫শ’টাকার জরিমানা ১৫হাজার টাকা করেছে, এক হাজার টাকার জরিমানা ২৫ হাজার টাকা করেছেন। শ্রম দূর্ঘটনায় আপনি যদি দায়ী হোন। আপনার শাস্তি হবে সাথে জরিমানা হবে। এই আইনের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ শ্রমিক ফেডারেশন ৩৪ টা সংশোধনী দিয়েছে। তার ভেতর ৩২টা সংশোধনী সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন স্থায়ী কমিটির মাধ্যমে পার্লামেন্টে পাঠানো হয়েছে। সেই আইন এখনো পাশ হয় নাই।
তিনি আরো বলেন, দূর্ঘটনার জন্য পরিবহন শ্রমিকরা একক ভাবে দায়ী নয়। ১০৫ টা করণে সড়ক দূর্ঘটনা ঘটে। যদি গাড়ির সামনের চাকা ব্লাস্ট হয়ে যায়, তাহলে শ্রমিকের চোদ্দগোষ্ঠীর পক্ষে সম্ভব না ঐ গাড়ি রাস্তায় রাখে। যদি ঘনবসতি এলাকায় ব্রেক ফেল করে ঐ শ্রমিকের পক্ষে গাড়ি নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব নয়। রাস্তায় গরু-ছগলের হাট, রাস্তায় ধান শুকানো, রাস্তার পাশে দোকান-পাট, রাস্তা ভাংগা। যদিও রাস্তা থেকে ৩৫ মিটার দূরে দোকান-পাট হাট-বাজার থাকার কথা। আমাদের দেশে যত হাই-ওয়ে হয়। হাই-ওয়ের উপর বড়-বড় সমস্ত বাজার হয়। এসব ঘটনার জন্য যে দূর্ঘটনা হয়। এই কথাটা কেউ বলতে চান না। সাংবাদিকদের উদ্যেশে বলেন, দূর্ঘটনা ঘটলেই আপনারা শ্রমিকদের ঘাতক, খুনি বলেন। প্রকৃত ঘটনা তদন্তের পর আপনারা সত্যকে তুলে ধরার আহবান জানান। সব শেষে শ্রমিক ইউনিয়নের আগামি নির্বাচন পরিচালনাকারী  তিন সদস্য বিশিষ্ট  কমিটির নাম ঘোষনা করেন। আগামি ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন সম্পূর্ণ করার ঘোষণা দেওয়া হয়।
২২ মে সোমবার সকাল ১১ টায় শরীয়তপুর আন্তঃজেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের এর আয়োজনে শরীয়তপুর পৌরবাস টার্মিনাল মাঠে অনুষ্ঠিত দিন ব্যাপী শ্রমিক ইউনিয়নের ত্রি-বার্ষিক সাধারণ সভার আয়োজন করা হয়।
অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি শরীয়তপুর ১ আসনের সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন অপু বলেছেন,  বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হচ্ছেন শ্রমিক বান্ধব প্রধানমন্ত্রী।  তিনি দেশের সাধারণ মানুষ, কৃষক,  শ্রমিক ও মেহনতি মানুষের উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।  তাইতো তার বিরুদ্ধে স্বাধীনতা বিরোধী  একটি কুচক্রি মহল ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। স্বাধীনতা বিরোধীদের এই  সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করেই দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা।
বরিশাল ও বৃহত্তম ফরিদপুর ১১ জেলার  আঞ্চলিক  শ্রমিক ফেডারেশনের কার্যকরী সভাপতি ও  শরীয়তপুর  আন্তঃজেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মোঃ ফারুক আহম্মেদ চৌকিদার এর সভাপতিত্বে সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা ওসমান আলী খান।
এছাড়াও অন্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন শরীয়তপুর পৌরসভার মেয়র  পারভেজ রহমান জন, বরিশাল  ও ফরিদপুর আঞ্চলিক  শরীয়তপুর সদর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান ও শরীয়তপুর জেলা সড়ক পরিবহন মালিক গ্রুপের সভাপতি ফারুক আহম্মদ তালুকদার,  বরিশাল ও বৃহত্তম ফরিদপুর ১১ জেলার  আঞ্চলিক  শ্রমিক কমিটির সভাপতি যুবায়ের জাকির,  শরীয়তপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র  মোঃ বাচ্চু বেপারী।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করে শরীয়তপুর আন্তঃজেলা শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি ফারুক চৌকিদার এবং অনুষ্ঠান সঞ্চালনা  করেন আলী মাদবর।
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

বিষয়: * বাংলাদেশ শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক
সর্বশেষ সংবাদ