মদনে প্রেমের ফাঁদে ফেলে ধর্ষণ, ৭ম শ্রেণির ছাত্রী অন্তঃসত্তা

 

 

মদন (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি ঃ

 

নেত্রকোনা মদনের খাগুরিয়া উচ্চ বিদালয়ের ৭ম শ্রেণির এক ছাত্রীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে ধর্ষণ করায়, সে পাচঁ মাসের অন্তঃসত্তা হয়ে পরেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার বারড়ি গ্রামে হিরণ মিয়ার কলেজ পড়ুয়া ছেলে সাব্বির (১৮) তার প্রতিবেশি স্কুল পড়ুয়া ছাত্রীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। এই সুযোগে প্রেমিকার সঙ্গে সে প্রায় সময় দৈহিক সম্পর্কে মিলিত হতো। দৈহিক মিলনের ফলে ছাত্রীটি অন্তঃসত্তা হয়ে পরায়, তার শারীরিক পরিবর্তন দেখা দিলে বিষয়টি পরিবারের নজরে আসে। ভুক্তভোগী ছাত্রীটির মা জানান, এ ঘটনাটি গ্রামের জানা জানি হলে, এলাকার মাতাব্বরগণ ছেলের পরিবারের সাথে কথা কলে আপোষ মীমাংসা করে দেয়। বুধবার উভয় পক্ষের লোকজন মিলে, ছেলে ও মেয়েকে নিয়ে নেত্রকোনার কোর্টে গেছে বিবাহ পড়ানোর জন‍্য। ছেলের বাবা বলেন, গ্রামের মানুষ ও মেম্বার সাহেব যে সিদ্ধান্ত নিবে আমি তাহা মানিয়া নিব।

এব‍্যাপারে,খাগুরিয়া উচ্চ বিদালয়ের প্রধান শিক্ষক শামসুল আলম জানান, ঘটনার আমি কিছুই জানিনা, মেয়েটি আমার বিদ‍্যালয়ের ৭ম শ্রেণি ছাত্রী। বিদ‍্যালয়ে ক্লাস চালু হওয়ার পর থেকে সে অনুপস্থিত রয়েছে। কাইটাইল ইউপির চেয়ারম্যান সাফায়েত উল্লা রয়েল  মানবজমিনকে জানান, বিষয়টি আমাকে ছাত্রীর বাবা গতকাল জানিয়েছে। আমি তাকে আইনগত ব‍্যবস্থা গ্রহণে কথা বলেছি এবং  ইউএনও সাহেবকে বিষয়টি অবহিত করেছি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
বিষয়: * ৭ম শ্রেণি * অন্তঃসত্তা * ধর্ষণ
লাইভ রেডিও
সর্বশেষ সংবাদ