জগন্নাথপুরে ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় তিন আসামির ৮ দিনের রিমান্ড

আব্দুস সালাম (সুনামগঞ্জ) সিলেট : সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে সৌদি প্রবাসীর স্ত্রী শাহনাজ পারভীন জ্যোৎস্নাকে (৩৫) দলবেঁধে ধর্ষণ ও ৬ টুকরো করে মরদেহ গুমের চেষ্টার অভিযোগে গ্রেপ্তারকৃত তিন আসামির ৮ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত।

রোববার (২০ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে সুনামগঞ্জের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আব্দুর রহিম এই রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তিরা হলেন, জগন্নাথপুরের অভি মেডিকেল হল ফার্মেসির মালিক জিতেশ চন্দ্র গোপ অভি (৩০) এবং তার দুই সহযোগী অঞ্জিৎ চন্দ্র গোপ (৩৩) ও অসীত গোপ (৩৬)।
আদালত পুলিশের পরিদর্শক বদরুল আলম তালুকদার জানান, পুলিশ তিন আসামির ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করে। আদালত তাদের ৮ দিনের রিমান্ডে দেন। জগন্নাথপুরের একটি ফার্মেসি থেকে গত বৃহস্পতিবার দুপুরে শাহানা পারভিন জ্যোৎস্নার ৬ টুকরা মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহতের ভাই হেলাল মিয়া অভিকে প্রধান আসামি করে গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে জগন্নাথপুর থানায় মামলা করে। এরপর পুলিশ তিনজনকে গ্রেপ্তার করে।
তিনি আরও জানান, ৩৮ বছর বয়সী নিহত জ্যোৎস্না জগন্নাথপুর পৌরসভার নয়াবাজার কলোনিতে দুই মেয়ে ও এক ছেলেকে নিয়ে থাকতেন। তার স্বামী সুরুক মিয়া সৌদি আরব প্রবাসী।
শনিবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) এক ব্রিফিংয়ে সিআইডির এলআইসি শাখার বিশেষ পুলিশ সুপার মুক্তা ধর জানান, জোৎস্নাকে ধর্ষণ ও হত্যার কথা স্বীকার করেছে অভি।
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
বিষয়: * ধর্ষণ ও হত্যা মামলা * শাহনাজ পারভীন জ্যোৎস্নাক হত্যা মামলা * সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর
লাইভ রেডিও
সর্বশেষ সংবাদ