সরিষাবাড়ীতে টিকা না পেয়ে উত্তেজনা কার্যক্রম স্থগিত

 

আবু সায়েম মোহাম্মদ সা’-আদাত উল করীম:

জামালপুর জেলার সরিষাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নির্ধারিত তারিখ অনুযায়ী অনলাইনে নিবন্ধনকারী ব্যাক্তিরা করোনার টিকার দ্বিতীয় ডোজ টিকা না পেয়ে অধিকাংশ লোকজন ফিরে গেছেন । টিকা না পেয়ে তারা উপজেলা স্বাস্থ্য প্রশাসনের অবহেলা এবং অব্যবস্থাপনার প্রতি তীব্র প্রতিবাদ জানান। এ সময় চরম উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। এ ঘটনার খবর পেয়ে সরিষাবাড়ী থানার পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় পরিস্থিতি অধীক নিয়ন্ত্রণ রাখতে বরাদ্দকৃত কিছু টিকা থাকলেও টিকা শেষ বলে জানিয়ে কার্যক্রম সাময়িক স্থগিত ঘোষণা করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।  ৫ সেপ্টেম্বর রবিবার  দুপুরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এ ঘটনা ঘটে।

টিকা না পেয়ে ফিরে আসা ব্যাক্তিদের সূত্রে জানাগেছে, রোববার সকাল ৯টায় অনলাইন নিবন্ধনকারীরা এসএমএস পেয়ে টিকা নিতে আসেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। এছাড়া যারা এসএমএস পাননি তবে প্রথম ডোজ নেওয়ার সময় তাদের হাতেলেখা তারিখ অনুযায়ী তারাও দ্বিতীয় টিকা নিতে লাইনে দাঁড়ান।

এ সময় টিকার বুথ থেকে জানানো হয়, এসএমএস না পেলে টিকা দেওয়া হবে না। এ নিয়ে দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষায় থাকা ব্যাক্তিরা লাইনে দাড়িয়ে হৈ চৈ শুরু করেন। তাদের অভিযোগ, ইতোপূর্বে যারা নিবন্ধন করে এসেছেন, এসএমএস না পেলেও তাদের টিকা দেওয়া হয়েছে। কিন্তু এখন তা বন্ধ ঘোষণা করা হয়রানিমূলক বলে প্রতিবাদ করেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসাক ডাঃ সাহেদুর রহমান সাহেদ গণমাধ্যমকে জানান, দ্বিতীয় ডোজের বরাদ্দকৃত টিকা কম থাকায় রোববার শুধুমাত্র এসএমএস প্রাপ্তদের দেওয়া হয়। কিন্তু ইতোপূর্বে এসএমএস না পেলেও টিকা দেওয়া হতো বিধায় উপস্থিত লোকজন হৈ চৈ শুরু করে। বরাদ্দকৃত টিকা শেষ হওয়ায় নতুন করে না আসা পর্যন্ত কার্যক্রম বন্ধ রাখা হয়েছে।

সরিষাবাড়ী থানার উপপরিদর্শক আরিফুল ইসলাম গণমাধ্যমকে জানান, টিকার সঙ্কট থাকায় লাইনে দাঁড়ানো লোকজন হৈ চৈ করেছিল। খবর পেয়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
বিষয়: * টিকা * ভ্যাক্সিন * সরিষাবাড়ি