ইউরোপে বন্যায় মৃত্যু বেড়ে ১৮০

       

কয়েক দশকের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ বন্যার কবলে ইউরোপ। টানা কয়েকদিনে বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে জার্মানি, বেলজিয়াম,নেদারল্যান্ডস। এ পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ১৮০ ছাড়িয়েছে। এরমধ্যে শুধু জার্মানিতেই ১৫৬ জন মারা গেছে। বেলজিয়ামে মারা গেছে ২৭ জন। সময়ের সাথে পাল্লা দিয়ে চলছে উদ্ধারকাজ।

৬০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে বড় প্রাকৃতিক দুর্যোগ দেখল জার্মানি।বন্যায় তলিয়ে গেছে হাজার হাজার মাইল এলাকা। সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত রিনেল্যান্ড পালাটিনাটে এবং নথস রিনে-ভেসপালিয়া রাজ্য ।বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। ক্ষয়ক্ষতির হিসাব কষছে বাস্তুহীন মানুষ।

এখনও নিখোঁজ রয়েছেন কয়েক হাজার মানুষ। উদ্ধারকাজে ১৫ হাজার পুলিশ, সেনা ও জরুরি কর্মী মোতায়েন করেছে দেশিটির সরকার। শুক্রবার থেকে বন্ধ গ্যাস ও বিদ্যুৎ সংযোগ। ক্ষতিগ্রস্থ কয়েকবার হাজার ঘরবাড়ি দোকানপাট ও রাস্তাঘাট। রোববার বন্যাদুর্গত এলাকা পরিদর্শন করবেন জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মার্কেল।

বেলজিয়ামে বন্যা কবলিত ১০ রাজ্যে উদ্ধারকাজে যোগ দিয়েছে সেনাবাহিনী। নিহতদের স্মরণে ২০ জুলাই, দেশজুড়ে শোক দিবস পালনের ঘোষণা দিয়েছে বেলজিয়ামের প্রধানমন্ত্রী আলেকজান্ডার দে ক্রো। এদিকে, জার্মানিতে বেশ কিছু জায়গায় পানি নামতে শুরু করলেও বন্যা পরিস্থিতি অবনতি হচ্ছে নেদারল্যান্ডস, লুক্সেমবার্গ, চেক রিপাবলিক ও সুইজারল্যান্ডে।সুইজারল্যান্ডে বেশ কিছু নদীর পানি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে বইছে। শুক্রবার দেশটির রাজধানী সুইসের সংলগ্ন বার্ন নদীর পার ভেঙ্গে পানি শহরে ঢুকে পরছে।

চলমান বন্যায় নেদারল্যান্ডসের দক্ষিণাঞ্চলে ব্যাহত হচ্ছে রেল ও সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা। উদ্ধারকাজ চলছে ফ্রান্স, ইতালি ও অস্ট্রিয়ায়।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন