আড়াইহাজারে জঙ্গি আস্তানা থেকে বোমা উদ্ধার, আটক দুই

নারায়ণগঞ্জের দুটি জঙ্গি আস্তানায় অভিযান চালিয়ে বোমাসহ বিপুল পরিমাণ বোমা তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার করেছে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট-সিটিটিসি। এর আগে আটক করা হয় নব্য জেএমবির সামরিক শাখার দুই সদস্যকে।

সিটিটিসি প্রধান জানান, সিদ্ধিরগঞ্জ সাইনবোর্ড এলাকায় পুলিশ বক্সে বোমা হামলার সাথে তারা জড়িত।

রোববার বিকেলে রাজধানীর যাত্রাবাড়ি এলাকা থেকে গ্রেপ্তার হয় আব্দুল্লহ আল মামুন নামের এক মুয়াজ্জিন। পুলিশের দাবি সে জেএমবির সামরিক শাখার সদস্য।

তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে রোববার সন্ধ্যা থেকে নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার এলাকার একটি মসজিদ ঘিরে রাখে পুলিশ। রাত সাড়ে ১০টায় সোয়াট ও কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট অভিযান চালায় মুয়াজ্জিনের বাসায়।

এসময় তিনটি বোমা উদ্ধার করে তা নিষ্ক্রিয় করে পুলিশ। উদ্ধার করা হয় বিপুল পরিমাণ বোমা তৈরির সরঞ্জাম। কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান মো. আসাদুজ্জামান জানান, গ্রেপ্তার মামুন বোমা তৈরীতে পারদর্শী ছিল। সে তার ঘরে বসেই বোমা তৈরি করতো।

মামুনের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে কেরানীগঞ্জ থেকে আবু নাঈম নামের আরেক মুয়াজ্জিনকে গ্রেপ্তার করে সিটিটিসি। পরে নারায়ণগঞ্জের মদনপুরে নাইমের বাসায় অভিযান চালিয়ে ৪টি রিমোর্ট কন্ট্রোল ও বোমা তৈরির সরঞ্জাম জব্দ করা হয়। সিটিটিসি বলছে, আবু নাঈমও নব্য জেমবির সামরিক শাখার সদস্য।

গত মে মাসে নারায়ণগঞ্জের একটি পুলিশ বক্সে যে বোমা পেতে রাখা হয়েছিল, সেটি মামুনের ঘর থেকে সরবরাহ করা হয়েছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন