ম্যাচ জিতেও আর্জেন্টিনার মাঠ নিয়ে অভিযোগ

 

শুরু থেকেই এবারের কোপা নিয়ে সমালোচনার শেষ নেই। করোনা মহামারির মধ্যেই ব্রাজিলের মাটিতে কোপার আয়োজন নিয়েই প্রশ্ন তুলেছেন অনেকে। সবাইকে উপেক্ষা করে আয়োজকরা ব্রাজিলের নাম ঘোষণা করে। যদিও সেসময় নিজ দেশের ফুটবলাররা বয়কটের ঘোষণাও দিয়েছিল।

চলমান কোপা আমেরিকার শুরু থেকেই মাঠ নিয়ে শোনা যাচ্ছে নানান অভিযোগ। ম্যাচ চলাকালীন সময়েই দেখা যাচ্ছে, খেলোয়াড়দের বুটের সঙ্গে উঠে যাচ্ছে ঘাস। যে কারণে অসমান বাউন্স হচ্ছে ফুটবলে। যা কেড়ে নিচ্ছে খেলার স্বাভাবিক ছন্দ।

ইকুয়েডরের বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনালের ম্যাচের পর ব্রাজিলের মাঠ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন আর্জেন্টিনা। ইকুয়েডরের জালে এক গোল দেওয়া লাউতারো মার্টিনেজও মাঠ নিয়ে ক্ষোভ ঝেড়েছেন। ম্যাচ শেষে তিনি বলেন, ‘খেলার মাঠে অনেক অসুবিধা থাকলেও, আমরা চেষ্টা করেছি নিজেদের সেরাটা দিতে এবং ভালো একটা ম্যাচ খেলতে। আমরা ভালো করেছি। এখন আমাদের বিশ্রাম নিয়ে কলম্বিয়ার কথা ভাবতে হবে। আমরা সম্প্রতি তাদের বিপক্ষে খেলেছি। কঠিন প্রতিপক্ষ হতে যাচ্ছে তারা।’

ব্রাজিল মাঠের সমালোচনা করেছেন আর্জেন্টিনা অধিনায়ক নিজেই। তিনি জানালেন, ‘আমরা খেলার চেষ্টা করি, মাঝে মধ্যে পারি। মাঠ থেকে খুব একটা সুবিধা পাওয়া যায় না। আমরা খুব গুরুত্বপূর্ণ একটা ম্যাচ খেললাম। আমাদের অন্যতম লক্ষ্য ছিল সেরা চারে থাকা। এখন আমাদের বিশ্রাম নিতে হবে। কারণ পরের ম্যাচের আগে বেশি সময় নেই।’

মাঠের ব্যাপারে অসন্তোষ জানিয়েছেন আর্জেন্টিনা কোচ লিওনেল স্কালোনি। মাঠের এমন দৈন্যদশার কারণে নিজেদের প্রস্তুতিতে দ্বিগুণ পরিশ্রম করতে হয় বলে জানালেন স্কালোনি। তার ভাষ্যে, ‘যেহেতু মাঠ খেলার জন্য প্রস্তুত ছিল না, তাই আমরা আগের চেয়ে দ্বিগুণ পরিশ্রম করেছি। ফুটবলপ্রেমী হিসেবে আমাদের কাছে সেরা বিষয় হলো মেসির খেলা উপভোগ করতে পারা। আমি আশা করি, সে আরও অনেক বছর খেলুক। এমনকি প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়রাও তার মুখোমুখি হওয়া উপভোগ করে।’

নিজেদের দেশের মাঠ নিয়ে অভিযোগ করে এরই মধ্যে শাস্তির মুখে পড়তে হয়েছে ব্রাজিল দলের কোচ তিতেকে।

 

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন