বাজেটে তৃতীয় লিঙ্গের মানুষকে চাকরি দিলে কর ছাড়ের প্রস্তাব

তৃতীয় লিঙ্গের মানুষের কর্মসংস্থানের জন্য ২০২১-২২ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে কর প্রণোদনার প্রস্তাব করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। তিনি বলেছেন, কোনো প্রতিষ্ঠান তৃতীয় লিঙ্গের মানুষকে চাকরি দিলে তারা পাঁচ শতাংশ পর্যন্ত কর রেয়াত পাবে।

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার প্রান্তিক ও সুবিধাবঞ্চিত মানুষকে অর্থনীতির মূলধারায় অন্তর্ভুক্তির চেষ্টা করছে। তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ প্রান্তিক ও সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠীর অন্যতম অংশ। কর্মক্ষম এ জনগোষ্ঠীকে উৎপাদনমুখী কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত করতে পারলে সামাজিক অন্তর্ভুক্তি নিশ্চিত হবে। এ পরিপ্রেক্ষিতে তৃতীয় লিঙ্গের মানুষের কর্মসংস্থান, জীবনমান উন্নয়ন, সামাজিক ও অর্থনৈতিক আত্তীকরণের লক্ষ্যে কর ছাড় দেওয়ার প্রস্তাব করছি।

তিনি বলেন, কোনো প্রতিষ্ঠান যদি তার মোট কর্মচারীর ১০ শতাংশ বা ১০০ জনের বেশি তৃতীয় লিঙ্গের ব্যক্তিদের নিয়োগ দেয়, তবে ওই কর্মচারীদের পরিশোধিত বেতনের ৭৫ শতাংশ বা প্রদেয় করের ৫ শতাংশের মধ্যে যেটি কম তা নিয়োগকারীকে কর রেয়াত দেওয়া হবে।

অন্যদিকে তৃতীয় লিঙ্গের করদাতাদের করমুক্ত আয়সীমা বাড়ানোরও প্রস্তাব করেছেন অর্থমন্ত্রী। এ শ্রেণির মানুষকে সামাজিক আত্তীকরণের লক্ষ্যে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ২০২১-২২ অর্থবছরে এ শ্রেণির করদাতাদের করমুক্ত আয়সীমা ৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

এতদিন তৃতীয় লিঙ্গের করদাতাদের করমুক্ত আয়সীমা সাধারণ করদাতাদের মতোই ছিল।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন