ইসরায়েলের গাজায় হামলা ‘যুদ্ধাপরাধের’ শামিল: জাতিসংঘ

মিশেল ব্যাচলেট। ছবি: সংগৃহীত

পাঠের সময় : . মিনিট

ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলি বিমান হামলাকে যুদ্ধাপরাধ হিসেবে আখ্যায়িত করা যেতে পারে বলে মন্তব্য করেছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার মিশেল ব্যাচলেট। একইসঙ্গে ইসরায়েলকে লক্ষ্য করে ইসলামিক গ্রুপ হামাসের রকেট হামলাকে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইনের লঙ্ঘন বলেও অভিহিত করেন তিনি। খবর প্রকাশ করেছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

বৃহস্পতিবার (২৭ মে) গাজার সহিংসতা তদন্তে ও অপরাধীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে মুসলিম দেশগুলোর আহ্বানে আয়োজিত বিশেষ ফোরামে মিশেল ব্যাচলেট বলেন, পূর্ব জেরুজালেমের আল আকসা মসজিদ প্রাঙ্গণ থেকে ইসরায়েলি বাহিনীকে সরে যেতে হামাসের দাবির পর থেকেই মূলত সহিংসতা শুরু হয়। পরে ইসলায়েলকে লক্ষ্য করে রকেট হামলা চালায় হামাস। যা আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইনের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন।

জবাবে গাজায় বিমান হামলা চালাতে শুরু করে ইসরায়েলি বাহিনী। এ ঘটনায় বেসামরিক নাগরিক নিহত হওয়া সহ তাদের অসংখ্য ভবন ধ্বংস হয়েছে, যোগ করেন তিনি।

জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার বলেন, ইসরায়েল দাবি করেছে যে, এইসব ভবন হামাস পরিচালিত বা সামরিক উদ্দেশে ব্যবহার করা হতো। অবশ্য তাদের দাবির প্রেক্ষিতে আমরা কোনো প্রমাণ পাইনি। এ ধরনের হামলা যুদ্ধাপরাধ প্রতিষ্ঠিত করে।

জাতিসংঘের তথ্যমতে, টানা ১১ দিনের সহিংস সংঘাতে কেবল ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় নিহত হয়েছে ৬৮ শিশুসহ অন্তত ২৭০ জন। এ ছাড়া আহত হয়েছেন প্রায় ২ হাজার জন ফিলিস্তিনি নাগরিক।

ইসরায়েলি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, গাজা উপত্যকা নিয়ন্ত্রণকারী দল হামাসের ছোড়া রকেটে ইসরায়েলে ২ শিশুসহ নিহতের সংখ্যা ১৩ জন।

 

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
লাইভ রেডিও
সর্বশেষ সংবাদ