ভারতে একদিনে ৩৯১৫ মৃত্যু, শনাক্ত ৪ লাখ ছাড়িয়ে নতুন রেকর্ড

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিপর্যস্ত ভারত। দেশজুড়ে আক্রান্ত ও মৃত্যুতে প্রতিদিনই রেকর্ড তৈরি হচ্ছে। এক দিনের রেকর্ড ভেঙে যাচ্ছে আরেক দিন।

এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ভারতে আরও ৩ হাজার ৯১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে চার লাখ ১৪ হাজার ১৮৮ জনের। একদিনে শনাক্তে সংখ্যার দিক দিয়ে বিশ্বে এটিই এখন সর্বোচ্চ।

বৃহস্পতিবার রাতের সর্বশেষ এতথ্য শুক্রবার সকালে জানিয়েছে সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভি।

এরআগে বুধবার  ভারতে একদিনে ৩ হাজার ৯৮০ জনের মৃত্যু হয় করোনায়, আর এই ভাইরাসে আক্রান্ত শনাক্ত হয় ৪ লাখ ১২ হাজার ৯৫ জন। মঙ্গলবার দেশটিতে করোনায় রেকর্ডসংখ্যক ৩ হাজার ৭৮০ জন করোনায় মারা যান। আগের দিন সোমবার মারা যান ৩ হাজার ৪৪৯ জন। আর রোববার মারা যান ৩ হাজার ৪৫৫ জন।

ভারতে সবমিলিয়ে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ১৪ লাখ ৯১ হাজার ৫৯৮ জনে। আর মৃত্যু দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ৩৪ হাজার ৮৩ জনে। গত পহেলা মার্চ দেশটিতে শনাক্ত রোগী ছিল ১৫ হাজার ৫১০ জনে। কয়েখ সপ্তাহের ব্যবধানে হু হু করে শনাক্ত বেড়েছে। বেড়েছে মৃত্যুও।

ভারতজুড়ে করোনার ভ্যাকসিন কার্যক্রম চালু থাকলেও স্বাস্থ্যসেবা খাত অনেকটাই ভেঙে পড়েছে। রোগী সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে হাসপাতালগুলো। অভাব দেখা দিয়েছে অক্সিজেন ও প্রয়োজনীয় ওষুধেরও।

বিশেষজ্ঞরা এখন ভারতে করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কা করছেন। তারা বলছেন, তৃতীয় ঢেউ ঠেকানো যাবে না, বরং ভ্যাকসিন আরও উন্নত করতে হবে।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহানে প্রথম করোনার অস্তিত্ব শনাক্ত হয়। এরপর সারাবিশ্বে তা ছড়িয়ে পড়ে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন